ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৬, নভেম্বর ২০২০ ১৬:৩১:৪২ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
দেশে করোনায় মৃত্যু সাড়ে ৬ হাজার ছাড়াল করোনার ভ্যাকসিন আসার সাথে সাথেই বাংলাদেশ পাবে: প্রধানমন্ত্রী বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু প্রায় ১৪ লাখ ২০ হাজার প্রথমবার বিমান বাহিনীতে ৬৪ নারী সৈনিক ৭ কোটি করোনার ভ্যাকসিন পাচ্ছে বাংলাদেশ ম্যারাডোনা ফুটবলপ্রেমীদের কাছে চিরস্মরণীয়: শেখ হাসিনা

ইয়েমেনে অপুষ্টিতে লাখো শিশু মৃত্যুঝুঁকিতে: জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ১২:৩৮ পিএম, ২৮ অক্টোবর ২০২০ বুধবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

যুদ্ধবিধ্বস্ত দক্ষিণ ইয়েমেনের শিশুদের পুষ্টিহীনতা চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে বলে জাতিসংঘের এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। এতে জাতিসংঘ সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, ক্রমেই ভয়ানক খাদ্য সংকটের দিকে ধাবিত হচ্ছে ইয়েমেন।

এ পুষ্টিহীনতার জন্য মহামারি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাব, আর্থিক মন্দা, বন্যা, দেশটিতে চলমান সংঘাত এবং চলতি বছর তাৎপর্যপূর্ণভাবে মানবিক সহায়তা কমে যাওয়াকে দায়ী করা হয়েছে এই প্রতিবেদনে।

মঙ্গলবার প্রকাশিত জাতিসংঘের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির বাসিন্দারা বছরের পর বছর ধরে মারাত্মক খাদ্য সংকটে রয়েছে। ফলে সেখানকার বাসিন্দা বিশেষ করে শিশুরা চরম অপুষ্টিতে ভুগছে।

তার ওপর এ বছর অবস্থা এতটাই খারাপ হয়েছে, যা অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে।

ইয়েমেনে জাতিসংঘের মানবিক বিষয়ক সমন্বয়ক লিসা গ্রান্ডে বলেন, ”গত জুলাই থেকে আমরা বারবার ইয়েমেনের বিষয়ে সতর্ক করেছি। বলছি, মারাত্মক খাদ্য সংকটের কারণে দেশটি বিপর্যয়ের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে আছে।”

“এখনই এ যুদ্ধ শেষ না হলে আমরা ওই পরিস্থিতির খুব কাছে পৌঁছে গেছি যেখান থেকে ফেরত আসা আর কখনওই সম্ভব হবে না। ইয়েমেন শিশুদের পুরো একটি প্রজন্ম হারিয়ে ফেলার ঝুঁকিতে পড়ে গেছে।”

দক্ষিণ ইয়েমেনের শিশুদের অপুষ্টি বিষয়ক এই জরিপের তথ্য বলছে, ২০২০ সালে এসে পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের পুষ্টিহীনতার সংখ্যা ১০ শতাংশে ঠেকেছে, যা সংখ্যায় অর্ধ মিলিয়ন বা পাঁচ লাখেরও বেশি।

জাতিসংঘের প্রতিবেদন বলছে, ইয়েমেনের ১৫.৫ শতাংশ শিশু তীব্র অপুষ্টিতে ভুগছে। শুধু তাই নয়, দেশটির এক মিলিয়নের চতুর্থাংশ, অর্থাৎ প্রায় আড়াই লাখ গর্ভবতী ও স্তন্যদানকারী মায়ের অপুষ্টির চিকিৎসা দরকার।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সরকারের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে দক্ষিণ ইয়েমেনের প্রায় ১৪ লাখ শিশু, যাদের বয়স পাঁচ বছরের কম।

অধিকার ও উন্নয়ন বিষয়ক একটি গবেষণা কেন্দ্রের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত পাঁচ বছরে ইয়েমেন যুদ্ধে সরাসরি প্রায় ১৬ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। যার মধ্যে নয় হাজার ৬৮২ জন পুরুষ। দুই হাজার ৪৬২ জন নারী ও তিন হাজার ৯৩১ জন শিশু রয়েছে।

সংস্থাটি আরও বলছে, যুদ্ধের কারণে ইয়েমেনের ১৫টি বিমানবন্দর, ১৪টি সমুদ্র বন্দর, দুই হাজার ৭০০টি মহাসড়ক ও সেতু, ৪৪২টি যোগাযোগ কেন্দ্র, এক হাজার ৮৩২টি সরকারি প্রতিষ্ঠান, চার লাখ ২৮ হাজার ৮০০টি আবাসিক ভবন, ৯৫৩টি মসজিদ, ৩৪৪টি স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও হাসপাতাল, ৯১৪টি স্কুল ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ১৭৮টি বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্র, ৩৫৫টি কারখানা, ৭৭৪টি খাদ্য বিক্রয় কেন্দ্র এবং ৩৭০টি তেল পাম্প স্টেশন হয় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

-জেডসি