ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৭, জানুয়ারি ২০১৯ ২২:৪৩:১৬ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
শিরোনাম
সন্ত্রাস-মাদক-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে `জিরো টলারেন্স` : প্রধানমন্ত্রী জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অফিস করছেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর নামে ফেসবুক খুলে প্রতারণা, গ্রেফতার ৫ পরীক্ষায় নকল রোধে আসছে আধুনিক প্রযুক্তি অনাস্থা ভোটে টিকে গেলেন থেরেসা মে বঙ্গমাতা আন্তর্জাতিক নারী ফুটবলের স্পন্সর ‘কে-স্পোর্টস’ জাতিসংঘের এক-তৃতীয়াংশ নারীকর্মী যৌন হয়রানির শিকার মুসলিম উম্মাহকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সংরক্ষিত আসনে ত্যাগী-রাজপথে সক্রিয়দের প্রাধান্য : কাদের জমতে শুরু করেছে বাণিজ্যমেলা, ছাড়ের ছড়াছড়ি

এই শীতে শিশুর ত্বকের যত্নে যা করবেন 

শারমিন সুলতানা | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০২:০০ পিএম, ১ জানুয়ারি ২০১৯ মঙ্গলবার

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

শীত চলে এসেছে পুরোদমে। আমরা বড়রা ত্বকের বাড়িত যত্ন নিতে শুরু করেছি। নিজেদের ত্বকের যত্নের পাশাপাশি আমরা কি খেয়াল রাখছি বাড়ির ছোট্ট সদস্যটার ত্বকের দিকে? না রাখলে আজই রাখতে শুরু করি। কেননা এই সময়টাতে বড়দের ত্বকের পাশাপাশি ছোটদের ত্বকের জন্যও নিতে হবে বাড়তি যত্ন। এসময়ে শিশুদের মসৃণ ত্বকও হয়ে ওঠে অমসৃণ, রুক্ষ ও শুষ্ক আর তাই শিশুদের ত্বকের যত্নে যা যা করণীয় তা নিচে আলোচনা করা হলো।  

শীতে শিশুদের গোসল করাতে হবে হালকা গরম পানি দিয়ে তাতে করে শিশুর শরীরে আদ্রতার যেমন ঘাটতি দেখা দেবে না তেমনভাবে ঠান্ডা লাগার সম্ভাবনাও থাকবে না তবে অবশ্যই গোসলের সময়টাকে কমিয়ে ফেলতে হবে।

শিশুর পুরো শরীরে  বেবি লোশন কিংবা অলিভ ওয়েল মেখে দিতে হবে গোসলের পরপরই । কারণ শীতের সময়টাতে গোসলের পরে শিশুর শরীরে ময়শ্চারাইজার না লাগালে ত্বক শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে ওঠে। ভালো মানের বেবি লোশন বা অলিভ ওয়েল শিশুর শরীরের শুষ্ক ও রুক্ষতাকে দূর করে ত্বক রাখে মসৃণ। 

এই সময়টাতে  শিশুদের  ঠোঁটের প্রতিও নিতে হবে বাড়তি যত্ন।  শিশুদের ঠোঁটে ভ্যাসলিন বা গ্লিসারিন লাগাতে হবে  ঘুমাতে যাওয়ার আগে।  নবজাতক শিশুরও ঠোঁট  ফাঁটতে দেখা যায় অনেক সময়। এক্ষেত্রে সামান্য পরিমাণ ভ্যাসলিন আঙুলে নিয়ে আলতো করে লাগাতে হবে নবজাতকের ঠোঁটে। তবে অবশ্যই তা ভালো করে মুছে দিতে হবে বুকের দুধ খাওয়ানোর আগে।

শীতকালে হিউমিডিফায়ার ব্যবহার করতে হবে শিশুর রুমে।  বেশ কিছু ভালো ব্র্যান্ডের হিউমিডিফায়ার পাওয়া যায় বাজারে। হিউমিডিফায়ারের কাজ হলো রুমে বাতাসের আর্দ্রতা ধরে রাখা। কাজেই এতে করে শিশুর ত্বকে শীতের শুষ্কতার প্রভাব পড়বে না। ফলে ত্বক থাকবে সুন্দর ও মোলায়েম।