ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭, জুন ২০১৯ ১১:৫৭:১৬ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
শিরোনাম
প্রধানমন্ত্রী আগামী ১ জুলাই চীন যাচ্ছেন ৫ বছরে দেড় কোটি লোকের কর্মসংস্থান করা হবে: প্রধানমন্ত্রী তিন দশক পর সচল সগিরা মোর্শেদ হত্যা মামলা বিদেশি চ্যানেল সম্প্রচারে ১৫% ভ্যাট আরোপ ২০ থেকে ২২ জুলাইয়ের মধ্যে এইচএসসির ফল

একাদশে ভর্তির ফল জানবেন যেভাবে

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৪:৩৯ পিএম, ৯ জুন ২০১৯ রবিবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির অপেক্ষায় থাকা শিক্ষার্থীদের অপেক্ষার অবসান ঘটতে যাচ্ছে। এরই মধ্যে এই ভর্তির ফল প্রস্তুত করেছে রেখেছে শিক্ষা বোর্ড। সোমবার প্রকাশ করা হবে একাদশে ভর্তির প্রথম মেধাতালিকা।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক ড. হারুন অর রশিদ বলেন, ফল প্রকাশে আমরা পুরোপুরি প্রস্তুত। রোববার দুপুরের মধ্যেই সবার কলেজের ভর্তির ফল ওয়েবসাইটে হালনাগাদ করা হবে, সোমবার সবার জন্য এই ফল উন্মুক্ত করা হবে।

এ বছর এখন পর্যন্ত ভর্তি প্রক্রিয়া নিয়ে কোনো গুরুতর অভিযোগ পাওয়া যায়নি বলে জানান ড. হারুন অর রশিদ। যে কারণে ভর্তি প্রক্রিয়া পর্যালোচনা করে তারা খুশি।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক জানান, ভর্তি সংক্রান্ত ওয়েবসাইট www.xiclassadmission.gov.bd থেকে ফল দেখার সুযোগ পাবে ভর্তিচ্ছুরা। সেখানে আবেদনকারীর রোল নম্বর, বোর্ড, পাসের সাল ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়েই জানা যাবে, কোন কলেজে ভর্তির সুযোগ পাবে সে।

কেবল ওয়েবসাইট নয়, মোবাইলের মাধ্যমেও একাদশে ভর্তিচ্ছুদের ফল জানানো হবে। বিভিন্ন কলেজে ভর্তির জন্য মনোনীত শিক্ষার্থীদের সোমবার দিবাগত মধ্যরাতের পর এসএমএসের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে তাদের কলেজের নাম।

প্রথম মেধাতালিকায় মনোনীত শিক্ষার্থীদের ১১ জুন থেকে ১৮ জুনের মধ্যে তাদের ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে। আর এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে টেলিটক বা মোবাইল ব্যাংকিং রকেট ও শিওর ক্যাশের মাধ্যমে বোর্ডের রেজিস্ট্রেশন ফি ১৯৫ টাকা ফি পরিশোধ করতে হবে। এই প্রক্রিয়ায় ভর্তি নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হলে তার মনোনয়ন বাতিল বলে গণ্য হবে। পাশাপাশি তার আবেদনটিও বাতিল হয়ে যাবে।

এর আগে গত ১২ মে থেকে ২৩ মে পর্যন্ত ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদনের সুযোগ পায় এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা। একেকজন শিক্ষার্থী অনলাইনে পাঁচ থেকে ১০টি কলেজের জন্য আবেদন করতে পারে।

এ বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এর মধ্যে ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন ছাত্রী এবং ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ জন ছাত্র। এ পরীক্ষায় সারাদেশে গড় পাসের হার ৮২ দশমিক ২০ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে এক লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ শিক্ষার্থী।

-জেডসি