ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১২, ডিসেম্বর ২০১৯ ১৬:৩২:৩৩ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
ব্রিটেনে সাধারণ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু দুর্নীতির জন্য সব অর্জন ম্লান হয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী এই রায় নজিরবিহীন: খালেদা জিয়ার আইনজীবী খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ রাজধানীতে ভবনের ছাদে মিলল দম্পতির লাশ

ওলগা তোকারচুক: বাস্তবতা-কল্পনার মিশ্রণ তার উপন্যাস

শিল্প-সাহিত্য ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৮:০৪ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৯ বৃহস্পতিবার

সাহিত্যে নোবেল পেলেন পোল্যান্ডের ওলগা তোকারচুক

সাহিত্যে নোবেল পেলেন পোল্যান্ডের ওলগা তোকারচুক

সাহিত্যে নোবেল পেলেন পোল্যান্ডের লেখক ওলগা তোকারচুক। তিনি ২০১৮ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পান। চলতি বছর তা ঘোষণা করা হলো। চলতি বছর সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন অস্ট্রিয়ার ৭৬ বছর বয়সী নাট্যকার ও ঔপন্যাসিক হ্যান্ডকে।

ওলগা তোকারচুক শুধু একজন লেখকই নন, সমাজকর্মী ও বুদ্ধিজীবী। তাকে পোল্যান্ডে তার প্রজন্মের অন্যতম সমাদৃত ও ব্যবসাসফল লেখক বলে গণ্য করা হয়। ২০১৮ সালে তিনি তার রচিত বিগুনি (ফ্লাইটস নামে ইংরেজি ভাষায় অনূদিত) উপন্যাসের জন্য ম্যান বুকার আন্তর্জাতিক পুরস্কার অর্জন করেন। তিনি প্রথম পোলীয় লেখক হিসেবে এই সম্মাননা লাভ করেন।

সাহিত্য নোবেল জয়ী ১১৪ জন পুরুষের বিপরীতে ১৫তম নারী হিসেবে এই স্বীকৃতি পেয়েছেন ওলগা। ৫৭ বছর বয়সী তোকারচুককে তার প্রজন্মের শীর্ষ ঔপন্যাসিক মনে করা হয়ে থাকে। তিনি বাস্তবতা আর কল্পনার মিশ্রণে উপন্যাস লেখেন। তবে, এক্ষেত্রে কল্পনাগুলোর সূত্রপাত হয়ে থাকে বাস্তবতা থেকেই।

তোকারচুক ১৯৬২ সালের ২৯ জানুয়ারি পোল্যান্ডের জিয়েলোনা গোরার নিকটবর্তী সুলেচো শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৮০ সালে রাজধানী ওয়ারশ বিশ্ববিদ্যালয়ে মনোবিজ্ঞানী হিসেবে প্রশিক্ষণ নেন। এ সময় তিনি কিশোরদের আচরণগত সমস্যার জন্য নির্মিত কেন্দ্রে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করেন।

১৯৮৫ সালে স্নাতক সম্পন্ন করার পর তিনি ভ্রোক্লাউ ও পরে ভালব্রিচে চলে যান, সেখানে তিনি থেরাপিস্ট হিসেবে অনুশীলন শুরু করেন। তোকারচুক নিজে কার্ল জাঙের শিষ্য হিসেবে বিবেচনা করেন। জাঙের মনস্তত্ত্ব তার সাহিত্যকর্মের প্রেরণা হিসেবে কাজ করেছে বলে উল্লেখ করেন।

১৯৯৮ সাল থেকে তোকারচুক নোয়া রুদার নিকটবর্তী একটি ছোট গ্রামে বসবাস করছেন। সেখান থেকে তিনি তার ব্যক্তিগত প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ‘রুটা’ তত্ত্বাবধান করছেন। তিনি রাজনৈতিক দল দ্য গ্রিনসের সদস্য এবং বামপন্থী ধারণায় বিশ্বাসী।