ঢাকা, মঙ্গলবার ০৪, আগস্ট ২০২০ ১০:৫৩:৪১ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
তাপ প্রবাহ অব্যাহত থাকবে: আবহাওয়া অধিদপ্তর জুলাইয়ে রেকর্ড ২.৬ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৮ লাখ ছাড়াল জরুরি প্রয়োজন ছাড়া রাত ১০টার পর বাইরে যাওয়া মানা বান্দরবানে উদযাপিত হচ্ছে আষাঢ়ী পূর্ণিমা দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৩০, আক্রান্ত ১৩৫৬

করোনা: কাজ হারান সব্জি বিক্রেতা তরুণীকে কাজ দিলেন সোনু

বিনোদন ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৩:৩৪ পিএম, ২৮ জুলাই ২০২০ মঙ্গলবার

কাজ হারানো তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীকে চাকরি দিলেন হলিউড অভিনেতা সোনু সুদ।

কাজ হারানো তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীকে চাকরি দিলেন হলিউড অভিনেতা সোনু সুদ।

ভারতের হায়দরাবাদ রাজ্যের বাসিন্দা উনদাদি সারদা কাজ করতেন একটি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থায়। করোনাভাইরাস লকডাউনের জেরে ধরে কাজ হারিয়ে শ্রীনগর কলোনি এলাকায় সব্জি বিক্রি করছিলেন। সেই কাজ হারানো তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীকে চাকরি দিলেন হলিউড অভিনেতা সোনু সুদ। সারদাকে চাকরি দেওয়ার কথা টুইট করে জানিয়েছেন ওই অভিনেতা।

রিচি শেলসন নামের এক ব্যক্তি সারদার কথা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সবার সামনে এনেছিলেন। সারদাকে কাজ দেওয়ার ব্যাপারে রিচির সেই টুইটে সোনু লিখেছেন, ‘আমার অফিসিয়ালরা তার সঙ্গে দেখা করেছেন। চাকরির চিঠিও পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। জয় হিন্দ।’

সারদার চাকরি পাওয়া নিয়ে রিচি এক সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘সোনু সুদ দাদা আমায় ফোন করেছিলেন। উনি বলেছেন আমি মেয়েটিকে লক্ষ্য করেছিলাম। ও চাকরি পাওয়ায় আমি খুব খুশি হয়েছি।’  

তবে সোনু কাজ হারানো তথ্যপ্রযুক্তি ওই কর্মীকে কী কাজ দিয়েছেন সে ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।

তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থায় কাজ হারানোর পর সারদা ভোর চারটার সময় উঠে সোজা চলে যেতেন সব্জির পাইকারি বাজারে। সেখান থেকে সব্জি কিনে এনে শ্রীনগর কলোনির রাস্তায় তা বিক্রি করতেন।

সব্জি বিক্রি করা নিয়ে এর আগে সারদা বলেছিলেন, ‘বাঁচার প্রশ্নে সৎভাবে করা কোনও কাজই ছোট নয়।’

সোনু সুদ একজন ভারতীয় অভিনেতা, মডেল এবং প্রযোজক। তিনি হিন্দী, তেলেগু এবং তামিল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। তিনি অল্প কিছু কন্নড় ও পাঞ্জাবী ছবিতেও অভিনয় করেছেন।

২০০২ সালে শাহেদ এ আজমে অভিনয়ের মাধ্যমে হিন্দী চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। ২০০৪ সালে মনি রত্নমের যুবা এবং ২০০৫ সালে ‘আশিক বানায়া আপনে’তে অভিনয় করেন।

তার অভিনিত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে অন্যতম সিম্বা (২০১৮), হ্যাপি নিউ ইয়ার (২০১৪),দাবাং (২০১০) প্রভৃতি।