ঢাকা, শুক্রবার ২৩, আগস্ট ২০১৯ ১৫:০৪:৪১ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
শিরোনাম
গ্যাটকো মামলায় খালেদা জিয়ার শুনানি ২৫ সেপ্টেম্বর ব্রেক্সিট ইস্যুতে বরিসকে ১ মাস সময় দিলো মার্কেল আমার গাঙচিল যেন ডানা মেলে উড়তে পারে: প্রধানমন্ত্রী প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী শুরু ১৭ নভেম্বর রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ফের পেছালো

কাট মানি প্রতিরোধে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৪:৫২ পিএম, ২৬ জুন ২০১৯ বুধবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

মানুষকে জনমুখী প্রকল্পের সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার ছুতোয় কোনো জন প্রতিনিধি বা সরকারি কর্মকর্তা কাট মানি নিলে এবার তাঁদের কঠোর শাস্তির মুখে পড়তে হবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতার দফতর সূত্রে জানা গেছে, এ বিষয়ে আইন অনুযায়ী কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে তাঁদের বিরুদ্ধে, হতে পারে যাবজ্জীবন কারাদন্ড। কাট মানি রোধে এবার এই পথেই হাঁটতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

দুর্নীতিগ্রস্ত জনপ্রতিনিধি এবং সরকারি কর্মকর্তাদের আইপিসি ৪০৯ ধারায় শাস্তি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীর দফতরের কর্মকর্তারা। জনপ্রতিনিধি হিসাবে বিশ্বাসভঙ্গের অপরাধে তাঁদের ফৌজদারি ধারায় শাস্তি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তারা । ওই আইনে যে বা যারা ওই ধরণের অপরাধে অভিযুক্ত তাঁদের যাবজ্জীবন কারাদন্ড অথবা মোটা অঙ্কের আর্থিক জরিমানার সঙ্গে অন্ততপক্ষে ১০ বছরের কারাদন্ড হতে পারে। এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, জানিয়েছেন তারা।

কাট মানি ইস্যুতে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় মানুষের বিক্ষোভের মুখে পড়তে হচ্ছে তৃণমূল নেতাদের। কোলকাতাসহ বীরভূম, কুচবিহার, জলপাইগুড়ি, বর্ধমান, মালদহ, পুরুলিয়া, নদীয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়াতেও বিভিন্ন পুর ও পঞ্চায়েত এলাকায় মানুষের ক্ষোভ সামলাতে হচ্ছে তাঁদের।সব জায়গাতেই মানুষ তাঁদের টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি তুলেছেন ।

এর আগে গত ১৮ জুন তৃণমূল কংগ্রেসের একটি দলীয় বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এতদিন পর্যন্ত যারা সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার অজুহাতে জনগণের কাছ থেকে কাট মানি তুলেছেন তাঁদের তা ফিরিয়ে দিতে হবে । আমার দলে কোনো চোরেদের স্থান নেই । যদি আমি তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিই তাহলে তারা গিয়ে অন্য দলে গিয়ে যোগ দেবে । কোনো কোনো নেতা গৃহ প্রকল্পে বরাদ্দ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে মানুষের কাছ থেকে ২৫ শতাংশ টাকাও নিয়েছেন বলে খবর এসেছে । এগুলোকে এখনই বন্ধ করতে হবে । যদি কেউ টাকা নিয়ে থাকেন তাহলে তাড়াতাড়ি সেই টাকা মানুষকে ফিরিয়ে দিন।

-জেডসি