ঢাকা, সোমবার ২৩, মে ২০২২ ৭:৪৬:৩৭ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
১৯ দিনে রেমিট্যান্স এল ১৩১ কোটি ডলার ডিএসসিসিতে চার দিনব্যাপী ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন ভবিষ্যৎ মহামারি মোকাবেলায় বৈশ্বিক চুক্তির আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য বিপর্যয়ের মুখে বিশ্ব সন্দেহজনক মাঙ্কিপক্স রোগীদের আইসোলেশনের নির্দেশ দেশে করোনায় মৃত্যু নেই, শনাক্ত ২৯ রাজধানীর উত্তরায় নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

গ্রাম্য শালিসে নারীকে লাঠিপেটা, ইউপি সদস্য গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিনিধি, বগুড়া  | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০১:০০ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০২২ রবিবার

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে এক ভন্ড জ্বিনের বাদশা ও এক নারীকে গ্রাম্য শালীসে লাঠিপেটা করায় পুলিশ তরিকুল ইসলাম নামের এক ইউপি সদস্যকে গ্রেফতার করেছে। ওই নারীর স্কুল পড়ুয়া মেয়ের সাথে জ্বিনের বাদশা পরিচয়ধারী খালেক নামের ওই ব্যক্তি আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়ায় তাদের  লাঠি পেটা করা  হয়।
আজ রবিবার (২৪ এপ্রিল) সকালে এঘটনায় সারিয়াকান্দি থানায় মামলা করা হলে পুলিশ ইউপি সদস্যকে গ্রেফতার করেন। 
এর আগে শনিবার (২৩ এপ্রিল) সকাল ১০টায় সারিয়াকান্দি উপজেলার নারচী ইউনিয়নের গনকপাড়া গ্রামের বিশু প্রামানিকের বাড়িতে শালীস বৈঠকের আয়োজন করা হয়।  
জানা গেছে, সারিয়াকান্দি উপজেলার ধাপ গ্রামের কবিরাজ  আব্দুল খালেক নিজেকে জ্বিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে বেড়ায়। সে পার্শ্ববর্তী মালোপাড়া গ্রামের এক নারীকে ধর্ম মেয়ে বানিয়ে সেখানে যাতায়াত করেন। আব্দুল খালেক জ্বিনের মাধ্যমে তার ধর্ম মেয়ের বাড়ি বিল্ডিং বাড়িতে পরিনত করার প্রলোভন দেখিয়ে শুক্রবার (২২ এপ্রিল) রাতে সেখানে যান। এরপর আলাদা একটি ঘরে তিনি জ্বিন হাজিরের কথা বলে অবস্থান করেন এবং সেখানে সবার প্রবেশ নিষেধ করে দেন। ভোরের দিকে জ্বিনের বাদশা আব্দুল খালেক তার ধর্ম মেয়ের স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে সেই ঘরে পাঠাতে বলেন। স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে নিয়ে ঘরে অবস্থান করার বিষয়টি জানতে পেরে পরদিন শনিবার সকাল ৭টার দিকে ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলাম ওই বাড়িতে হাজির হয়ে কবিরাজকে আটক করেন। এরপর কবিবার ও তার তার ধর্ম মেয়েকে গ্রামের বিশু প্রামানিকের বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখা হয়। সকাল ১০টার দিকে গ্রাম্য শালিস হবে মর্মে প্রচার চালালে সেখানে কয়েক শ' নারী পুরুষ সমবেত হন।  
শালিসী বৈঠকে জ্বিনের বাদশা আব্দুল খালেককে লাঠি পেটা, কান ধরে ওঠাবসা এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং জ্বিনের বাদশার ধর্ম মেয়েকে লাঠি পেটা করার সিদ্ধান্ত দেন ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলাম। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ইউপি সদস্য হুমায়ন কবির জ্বিনের বাদশা আব্দুল খালেককে লাঠিপেটা করেন। এবং জ্বিনের বাদশাকে বাড়িতে আশ্রয় দেয়ায় তার ধর্ম মেয়েকে লাঠি পেটা করেন  ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলাম। 
এদিকে গ্রাম্য শালিসে নারীকে লাঠি পেটা করার একটি ভিডিও শনিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ আজ সকালে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য তরিকুলকে গ্রেফতার করে। অপর ইউপি সদস্য হুমায়ুন কবীর পলাতক রয়েছে।
সারিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে এবিষয়ে মামলা করেছেন।