ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩, এপ্রিল ২০১৯ ৭:৫৭:৫৮ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
শিরোনাম
শিশু জায়ানের মরদেহ আসবে বুধবার ব্রুনেইয়ের সঙ্গে ৬ সমঝোতা স্বাক্ষর শ্রীলঙ্কায় সিরিজ বোমায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৯০ স্ত্রীর স্বীকৃতি চাইতে এসে অগ্নিদগ্ধ তরুণীর ঢামেকে মৃত্যু শাহজালালের টয়লেট থেকে ৪ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার

দুই দফা ভাঙচুর, ঢাবিতে বর্ষবরণের কনসার্ট বাতিল

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৫:৩২ পিএম, ১৩ এপ্রিল ২০১৯ শনিবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা আয়োজিত চৈত্র সংক্রান্তি ও বর্ষবরণ অনুষ্ঠান উপলক্ষে অনুষ্ঠানস্থলে দুই দফা ভাংচুরের পর অনুষ্ঠানের কনসার্ট বাতিল করার ঘোষণা দিয়েছে আয়োজক কতৃপক্ষ।

শনিবার কনসার্ট আয়োজনের স্পন্সর কোমলপানীয় প্রতিষ্ঠান মোজোকে অনুষ্ঠানের সামগ্রী নিয়ে চলে যেতে দেখা যায়। এ অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিল ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা।

ঘটনাস্থলে অনুষ্ঠানের উপস্থিত স্পন্সর মোজোর মার্কেটিং বিভাগের অপারেশন হেড (ব্র্যান্ড) আজম বিন তারেক বলেন, রাত ১টার পর একবার হামলা হয়। পরে সকাল ৮ টার দিকে আবার ভাংচুর করে। তিনি আরো জানান, ২০-২৫ জনের একটি দল এসে গণ্ডগোল বাঁধাতে গেলে আমি তাদের ফিরে যাওয়ার অনুরোধ করি। এর পাঁচ মিনিটের মধ্যে আরও ১০০-১৫০ জন এসে আমাকেসহ আমার ওয়ার্কারদের বের করে দেয়। ১০-১২ মিনিটের মধ্যে পুরো জায়গায় ভাংচুর চালায় এবং অগ্নিসংযোগ করে চলে যায়। এতো রিস্ক নিয়ে অনুষ্ঠান করা যায় না। দুই দফা ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের পর আমরা নিরাপত্তহীনতার কারণে চলে যাচ্ছি।

কনসার্টে দায়িত্বরত এক কর্মচারী জানায়, এখানে ছাত্রলীগ আবারো হামলা চালাতে পারে তাই আমাদের চলে যেতে বলা হয়েছে। কে বলেছে এমন কথা জানতে চাইলে তিনি কিছু বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

আয়োজনের সার্বিক সমন্বয়ের দায়িত্বে থাকা ডাকসুর সংস্কৃতি সম্পাদক আসিফ তালুকদার এ বিষয়ে বলেন, এমন অনাকাঙ্খিত ঘটনার জন্য আয়োজকরা ঘাবড়ে গিয়েছে। তবে কনসার্ট হবে বলে তিনি জানান। অন্যদিকে কনসার্ট আয়োজনকারীদের চলে যেতে বলা হয়েছে বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিম জানায়।

কনসার্ট বাতিল করা হয়েছে কি না বা কারা আগুনে দিয়েছে এমন তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের জানা আছে কি না? বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. গোলাম রাব্বানী বলেন, এটা শিক্ষার্থীদের প্রোগ্রাম তারাই সিদ্ধান্ত নেবে আয়োজন করা হবে কি হবে না। আর কারা আগুন দিয়েছে এটা আমরা দেখছি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আবদুর রহিম বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। এটি কোনভাবেই কাম্য নয়।

জানা গেছে, বৈশাখী কনসার্টের এই আয়োজন সম্পর্কে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে জানানো হয়নি। অন্য ৩ নেতা সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী, ঢাবি সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস এবং সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের নেতৃত্বে এ কনসার্ট আয়োজন করা হয়। এতে শোভনের অনুসারীরা ক্ষুব্ধ হয়ে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটায়।


-জেডসি