ঢাকা, বুধবার ১৩, নভেম্বর ২০১৯ ২৩:২৯:৫৫ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
রোহিঙ্গা সমস্যার জন্য দায়ী জিয়া : প্রধানমন্ত্রী ২০২০ সালের মধ্যে শতভাগ মানুষ বিদ্যুৎ পাবে: প্রধানমন্ত্রী নিজেকে বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট দাবি করলেন জেনাইন ৭ বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্রেন দুর্ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা

দেশের প্রায় ১৪ ভাগ শিশু মানসিক সমস্যায় ভুগছে

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ১০:২৫ পিএম, ৫ নভেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার

দেশের শিশুদের ১৩ দশমিক ৬ শতাংশ ও বড়দের ১৬ দশমিক ৮ শতাংশ মানুষ মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যায় আক্রান্ত। আজ মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিশু ও বয়োসন্ধিকালীন কিশোর-কিশোরীদের মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক সমিতির সভায় এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ডা. মিলন হলে সভার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া।

তিনি বলেন, শিশু ও কিশোর-কিশোরীদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় মা-বাবা, চিকিৎসকসহ সংশ্লিষ্ট সকলেই আরো যত্নবান হতে হবে। শিশুদেরকে শেয়ারমূলক কাজে উৎসাহিত করতে হবে।

তিনি বলেন, এক্ষেত্রে প্রত্যেক মা বাবা যেন তাদের সন্তানদেরকে নিরুসাহিত না করেন। শিশুদের মনের বিকাশ ও পরিশীলিত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে তাদের প্রতি আমাদের সকলকে আরো যত্নবান না হওয়ার বিকল্প নাই।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অটিস্টিক শিশু, সেরিব্রাল পালসিতে আক্রান্ত শিশু, নিউরোজিক্যাল ডিসঅর্ডারে আক্রান্ত শিশু, প্রতিবন্ধিতার শিকার শিশু, মানসিক স্বাস্থ্যগত সমস্যায় আক্রান্ত শিশুদের বিষয়ে সবসময়েই অতিমানবিক দৃষ্টিভঙ্গি পোষণ করে আসছেন এবং সকল ধরণের শিশু ও কিশোর-কিশোরীদের বিষয়ে তিনি সবসময়ই অত্যন্ত সচেতনতার সাথে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে শিশু ও কিশোর-কিশোরীদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় করণীয় সব কিছুই করা হবে।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শহীদুল্লাহ সিকদার বলেন, মনোরোগবিদ্যা বিভাগ চিকিৎসা বিজ্ঞানের অন্যান্য বিষয়ের ন্যায় সমগুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় এবং এটা বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত। বয়োসন্ধিকালীন কিশোর কিশোরীদের চিকিৎসা ও কল্যাণের কথা চিন্তা করে বিশ্ববিদ্যালয়ে চাইল্ড এন্ড এডোলেসেন্ট মেন্টাল হেলথ উপর এমডি কোর্স চালু করা হয়েছে। আমাদের অবশ্যই শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়টি সমান গুরুত্ব দিয়ে সমদৃষ্টিতে দেখতে হবে। তাহলেই আমরা এক্ষেত্রে উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যেতে পারব।

অন্য বক্তারা বলেন, বহির্বিশ্বে মনোরোগ বিদ্যা বিভাগের অন্তর্ভুক্ত কোর্স সম্পন্ন ছাড়া এমবিবিএস ডিগ্রী সম্পন্ন হয় না। বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এবং যারা মানসিক স্বাস্থ্যগত সমস্যায় আক্রান্ত তাঁদের সকলের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় দক্ষ চিকিসৎক তৈরি, দক্ষ জনবল তৈরি এবং প্রয়োজনীয় সংখ্যক কোর্স চালু করা জরুরি।

বাংলাদেশ এসোসিয়েশন ফর চাইল্ড এন্ড এডোলেসেন্ট মেন্টাল হেলথ এর সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোঃ ফারুক আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গুরুত্বপূর্ণ এই সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অধ্যাপক ডা মোঃ গোলাম রাব্বানী, অধ্যাপক ডা. মোঃ ওয়াজিউল আলম চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ এস আই মল্লিক, বিশিষ্ট লেখক ও চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. মোহিত কামাল, অধ্যাপক ডা. ঝুনু শামসুন নাহার, অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোরোগবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এমএমএ সালাউদ্দীন কাউসার, অধ্যাপক ডা. নাহিদ মাহজাবিন মোরর্শেদ, ডা. হেলাল উদ্দিন আহমেদ, ডা. সাদিয়া আফরিন, ডা. সিফাত ই সৈয়দ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন ।

আজ মঙ্গলবার থেকে বয়োসন্ধিকালীন কিশোর-কিশোরীদের মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক সমিতি বাংলাদেশ এসোসিয়েশন ফর চাইল্ড এন্ড এডোলেসেন্ট মেন্টাল হেলথ-এর দুই দিনব্যাপী ১২তম বার্ষিক সম্মেলন ও সাধারণ সভা শুরু হয়েছে।