ঢাকা, মঙ্গলবার ২৪, নভেম্বর ২০২০ ১৭:২৯:৩৫ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
দেশে করোনা শনাক্ত রোগী সাড়ে ৪ লাখ ছাড়াল বিবিসির বর্ষসেরা ১০০ নারী ব্যক্তিত্বের তালিকায় রিনা ও রিমা স্কুলে ভর্তির বিষয়ে কাল শিক্ষামন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন শেখ হাসিনা-মোদির ভার্চুয়াল বৈঠক ডিসেম্বরে বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল ১৪ লাখ

নারীদের সাইবার নিরাপত্তায় পুলিশের বিশেষ ইউনিট

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০২:৩৫ পিএম, ১৬ নভেম্বর ২০২০ সোমবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক: সহজ লভ্যতার কারণে একদিকে যেমন বেড়ে চলছে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা, তেমনই পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলছে সাইবার অপরাধও। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক-কেন্দ্রিক অপরাধের সংখ্যা বাড়ছে বেশি।আর সাইবার স্পেসে নারীরা ব্যক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিকসহ বিভিন্নভাবে সাইবার অপরাধের শিকার হচ্ছেন। এই ধরনের অপরাধের ভিক্টিম হয়েও নানা কারণে তা লুকিয়ে রাখছেন তারা। আর এসব নারীর বেশিরভাড়ের বয়স ১৪ থেকে ২৪ বছর। তাই দেশের নারীদের সাইবার ওয়ার্ল্ডে নিরাপদ রাখতে ‘পুলিশ সাইবার সাপোর্ট ফর ওমেন’ হউনিট চালু করেছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ।

আজ সোমবার (১৬ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর রাজারবাগে বাংলাদেশ পুলিশ অডিটোরিয়ামে এ পেজ উদ্বোধন করেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ।

পুলিশ প্রধান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে টেকনোলজির দিক থেকে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের ১১ কোটি মানুষ সেলফোন ব্যবহার করে। ৭ কোটি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করে। জাতিসংঘের একটি জরিপে দেখা যায় বিশ্বে তিন চতুর্থাংশ নারী হয়রানির শিকার হন। সাইবার অপরাধের শিকার ৬৮ শতাংশই নারী। প্রযুক্তির সহজলভ্যতা যেভাবে আমাদেরকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে, তেমনি বিভিন্ন সমস্যারও সৃষ্টি করছে। সেসব সমস্যা মোকাবিলায় পুলিশের এই সেবা।

আইজিপি বলেন, সাইবার ওয়ার্ল্ডে অপরাধীদের সবচেয়ে বড় সুবিধা নাম-পরিচয় ও দেশ গোপন রেখে নারীদেরকে তারা হয়রানি করতে পারে। এটি নারীর প্রতি ডিজিটাল হয়রানির নতুন রুপ। এটি শুধু বাংলাদেশে নয়, বিশ্বব্যপী একই চিত্র। এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে ৭৩ শতাংশ নারী সাইবার বুলিংয়ের শিকার হন। ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম, গুগল, ফেসবুক, ফেক আইডি খুলে, অনলাইন পোর্টাল খুলে, ব্লগে মিথ্যা প্রচারণা ও মানুষের চরিত্র হননের চেষ্টা করা হয়৷

বেনজীর আহমেদ আরও বলেন, পুলিশ সাইবার সাপোর্ট ফর ওমেনের সব অফিসারই হবেন নারী। যারা কল রিসিভ করবেন, পরামর্শ দেবেন, সহয়তা করবেন, তদন্ত করবেন তারা সবাই নারী কর্মকর্তা। ৯৯৯ থেকেও পুলিশ সাইবার সাপোর্ট ফর ওমেন সেবা পাওয়া যাবে জানিয়ে আইজিপি বলেন, দেশের সব স্থান থেকে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে বিনামূল্যে এই সেবা নারীরা গ্রহণ করতে পারবেন।

সাইবার স্পেসে সংঘটিত নারীর প্রতি হয়রানিমূলক অপরাধসমূহের অভিযোগ গ্রহণ, প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও আইনি সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে ‘Police Cyber Support for Women’ নামক ফেসবুক পেজে, ইমেইল: [email protected] ও হটলাইন মোবাইল নম্বর: ০১৩২০০০০৮৮৮ ব্যবহার করে প্রয়োজনীয় সেবা গ্রহণ করতে পারবে।

উল্লেখিত যোগাযোগ মাধ্যমে কেবল নারীরা, যারা সাইবার বুলিং, আইডি হ্যাক, স্পর্শকাতর তথ্য, ছবি, ভিডিও প্রকাশ ও সাইবার স্পেসে যৌন হয়রানি ইত্যাদি অপরাধের শিকার হচ্ছেন তারা এখানে অভিযোগ জানাতে পারবেন এবং সম্পূর্ণ নিরাপত্তার সাথে ভিকটিমের তথ্য গোপন রেখে প্রয়োজনীয় সেবা ও আইনি সহায়তা প্রদান করা হবে। পাশাপাশি নিরাপদ সাইবার স্পেস তৈরি করতে প্রয়োজনীয় তথ্য ও সচেতনামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

-জেডসি