ঢাকা, শনিবার ২৫, মে ২০১৯ ১১:০৬:০০ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
শিরোনাম
গুজরাটে কোচিং সেন্টারে আগুন, ১৮ শিক্ষার্থী নিহত পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন থেরেসা মে, কাঁদলেনও

নিয়মিত হাঁটুন, নিশ্চিন্তে থাকুন

অনলাইন ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ১২:৩২ পিএম, ৪ মার্চ ২০১৯ সোমবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

নিয়মিত হাঁটা সবচেয়ে ভালো ব্যায়াম। সুন্দর, মুক্ত পরিবেশে হাঁটলে মন আর শরীরটা বদলে যায়। আর তাই প্রতিদিন সকালে অন্তত ২০ থেকে ৩০ মিনিট টানা হাঁটার অভ্যাস রাখা উচিৎ। এতে করে সারাটা দিন ভালো কাটবে। শরীরের রোগভোগের আশঙ্কা অনেক কমে যাবে।

১. হাড় ও পেশির শক্তি বাড়ায় : নিয়মিতা হাঁটা হাড় ও পেশির শক্তি বাড়ায়। প্রতিদিন কমপক্ষে ১৫ মিনিট হাঁটা হাড়কে ভালো রাখে। বিশেষ করে পায়ের স্বাস্থ্য ভালো করে।

২. মন ভালো হয় : হাঁটা এনড্রফিনের মাত্রা বাড়াতে সাহায্য করে। এনড্রোফিন মস্তিষ্কের এক ধরনের রাসায়নিক উপাদান। এটি মেজাজকে ভালো রাখতে সাহায্য করে।

৩. উচ্চ রক্তচাপ কমায় : আপনি যদি উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভোগেন, তাহলে হাঁটার মতো ভালো ব্যায়াম আর হয় না।

কেবল ১৫ মিনিটের হাঁটা রক্তের চাপ কমাতে সাহায্য করে।

৪. ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করে : হাঁটা শরীরে সুগারের মাত্রাকে ঠিকঠাক রাখতে সাহায্য করে। বিভিন্ন গবেষণায় বলা হয়, নিয়মিত ১৫ মিনিট হাঁটা ডায়াবেটিস প্রতিরোধে সাহায্য করে।

৫. হৃদরোগ কমায় : হাঁটা রক্তের বাজে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়। শরীরের রক্তচাপের মাত্রাকে নিয়ন্ত্রণ করে। এতে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে।

৬. ওজন কমায় : প্রতিদিন অন্তত ১৫ মিনিট হাঁটা শরীরের ক্যালোরি ঝড়াতে সাহায্য করে। এতে ওজন কমে। তাই ওজন কমাতে চাইলে অবশ্যই হাঁটুন।

মনে রাখবেন -

প্রতিদিন হাঁটতে যাওয়ার আগে লক্ষ্য রাখুন আপনার পোশাকটি যথেষ্ট আরামদায়ক এবং হাঁটার উপযোগী কিনা। হাঁটার আগে একটু ঢিলেঢালা পোশাক পরে নিন। হাঁটার জন্য আরামদায়ক জুতো কিনে নিন। সঙ্গে অবশ্যই খাবার পানি রাখুন। প্রতি ১৫ মিনিট পর পর পানি খান অল্প করে। তাহলে সকালের হাঁটার অভ্যাসটা উপভোগ্য হয়। সূত্র: ইন্টারনেট

-জেডসি