ঢাকা, শুক্রবার ২৮, ফেব্রুয়ারি ২০২০ ৫:৫০:২৬ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
এবার করোনায় আক্রান্ত ইরানের ভাইস প্রেসিডেন্ট এবার পাকিস্তানে করোনাভাইরাসের হানা খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ মশা যেন ভোট খেয়ে না ফেলে, মেয়রদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী করোনা আতঙ্কে সৌদি ভ্রমণ ভিসা স্থগিত

বগুড়ার গাবতলীতে জমে উঠেছে বউমেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৬:১৯ পিএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ বৃহস্পতিবার

বগুড়ার গাবতলীতে জমে উঠেছে বউমেলা

বগুড়ার গাবতলীতে জমে উঠেছে বউমেলা

দুইশ বছরের ঐতিহ্যবাহী ‘পোড়াদহ মেলা’ জমে উঠেছে। বগুড়ার গাবতলী উপজেলা মহিষাবান ইউনিয়নের এ মেলার দ্বিতীয় দিন আজ বৃহস্পতিবার। আজ আয়োজন করা হয়েছে ‘বউ মেলা’ও।

বউ মেলায় কেনাকাটা করেন বিভিন্ন বয়সী নারীরা। মেলায় বিক্রেতাও নারীরা। যে কারণে এর নাম দেওয়া হয়েছে বউ মেলা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সকাল থেকেই এলাকার নানা বয়সী মেয়েরা কেনাকাটার জন্য এসেছে বউ মেলায়। দুপুরের দিকে মেলা পরিপূর্ণ হয়ে ওঠে। বিকেলে জমে ওঠে পুরো মেলা।

মেলায় আসা দর্শণার্থী আয়োশী, সেতারা, জোসনা আমাদের সময়কে জানান, তারা প্রতি বছর নিজেদের ব্যবহারের জন্য কসমেটিকস ও ইমিটেশনের গয়না মেলা থেকে কিনে থাকেন। দাম কম হওয়ায় তারা মেলা থেকে নেন। তবে এবার দাম কিছুটা বেশি।

মেয়েদের জন্য মেলায় চুড়ি, ফিতা, দুল, মালা, আংটিসহ সব ধরনের পণ্য রয়েছে। বিক্রেতা আলেয়া রেওয়া, খাদিজা বেগম জানান, দর্শণার্থী বেশি হওয়ায় বিক্রি খুব ভালো হচ্ছে।

বগুড়া শহর থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার পূর্বে গাবতলী উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নের গোলাবাড়ী বাজার সংলগ্ন ইছামতি নদীর শাখা গাড়ীদহ খালের তীর ঘেঁষে প্রায় দুইশ বছর আগে থেকে মাঘ মাসের শেষ বুধবার সন্ন্যাসী পূজা উপলক্ষে বসে ঐতিহ্যবাহী পোড়াদহ মেলা। বিশাল আকৃতির মাছের জন্য বিখ্যাত এই মেলা উপলক্ষে আশপাশের ২০টি গ্রামের বাড়িতে বাড়িতে শুরু হয় উৎসব।

প্রতিটি বাড়িতে নতুন বউ-জামাই যেমন আসেন, তেমনি পুরাতন আত্মীয়রাও কেউ বাদ পড়েন না। কিন্তু সেসব আত্মীয়দের মধ্যে শুধুমাত্র পুরুষরাই পোড়াদহ মেলায় যাওয়ার সুযোগ পান।

বউ মেলায় যেতে পারেন শুধু নারীরা। কারণ পোড়াদহ মেলায় নিরাপত্তা এবং বিশৃঙ্খলার আশঙ্কায় সেখানে নারীরা প্রবেশ করতে পারেন না। যে কারণে বউ মেলার আয়োজন শুরু হয় ২০ বছর আগে।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই ত্রিপল ও সামিয়ানা টানিয়ে পসরা সাজিয়ে বউ মেলার আসর শুরু হয়। নারী ও মেয়ে শিশুদের জন্য সেখানে খেলনা সামগ্রী আর গৃহস্থালীর প্রয়োজনীয় সামগ্রীর দোকান বসেছে।

এবারই প্রথম বউ মেলায় কেনাকাটা করতে এসে স্থানীয় নারীরা জানান, তারা নির্বিঘ্নে কেনাকাটা করতে পারছেন।

মেলায় নারীরাই যেহেতু ক্রেতা, তাই প্রসাধনী সামগ্রীই সেখানে বিক্রি হয় বেশি। দোকানিরা জানান, প্রসাধনীর পাশাপাশি শিশুদের খেলনার বিক্রিও ভালো হচ্ছে।

মেলার আয়োজক আমিনুল ইসলাম আমাদের সময়কে জানান, পোড়াদহ মেলায় নারীরা যেতে পারতেন না বলে বিষয়টা বেমানান ছিল। এ কারণেই বউ মেলার আয়োজন করা। এখানে যেসব পুরুষ সঙ্গে আসছেন তারা নিজেদের ইচ্ছাতেই মেলার ভেতরে ঢোকেন না। মেলাটি সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

গাবতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাবের রেজা আহমেদ বলেন, ‘বউ মেলাটি সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এজন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করে।’