ঢাকা, মঙ্গলবার ২০, এপ্রিল ২০২১ ১৭:৫৫:৫৫ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
দেশে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৯১ জনের মৃত্যু করোনা টিকা উৎপাদনে সহায়তার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর লকডাউনের সময় বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি কয়েক মাসেই নিয়ন্ত্রণে আসবে করোনা: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ভারতে করোনায় আরও ১,৭৫৭ মৃত্যু, আক্রান্ত আড়াই লাখ খালেদা জিয়ার জ্বর নেই, শ্বাসপ্রশ্বাস স্বাভাবিক

বিবস্ত্র করে নারীকে নির্যাতন: ১৩ আসামির বিরুদ্ধে চার্জগঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৪:৪৭ পিএম, ২৪ মার্চ ২০২১ বুধবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের একলাশপুর ইউনিয়নে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দেলোয়ার বাহিনীর দেলোয়ারসহ ১৩ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ (চার্জ) গঠন করেছে আদালত। একইসঙ্গে অপর আসামি ইউপি সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগ মেম্বারকে মামলা থেকে অব্যাহতির আদেশ দেয়া হয়।

বুধবার দুপুরে শুনানি শেষে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক জয়নাল আবেদীন এ আদেশ দেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, বেলা ১২টায় আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়। প্রথমে মামলার আসামি মোয়াজ্জেম হোসেন ওরফে সোহাগকে মামলা থেকে অব্যাহতির আবেদন করেন তার আইনজীবী। শুনানি শেষে আদালত তাকে অব্যাহতির আদেশ দেন। এরপর রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আসামিদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ পড়ে শোনান। এসময় আসামিরা নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন।

অভিযোগ গঠন করা আসামিরা হলেন- দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান মো: দেলোয়ার হোসেন, জামাল উদ্দিন, নুর হোসেন ওরফে বাদল, মো: আবদুর রহিম, মোহাম্মদ আলী ওরফে আবুল কালাম, ইস্রাফিল হোসেন, মাঈন উদ্দিন ওরফে সাজু, সামছুদ্দিন ওরফে সুমন, আবদুর রব ওরফে চৌধুরী মিয়া, মো: আরিফ, নুর হোসেন ওরফে রাসেল, আনোয়ার হোসেন ওরফে সোহাগ ও মো: তারেক।

এর আগে, ২০২০ সালের ১৪ ডিসেম্বর ১৪ আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পিবিআই। একই বছরের ৫ অক্টোবর বেগমগঞ্জ মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলাটি দায়ের করেন নির্যাতিতা।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মামুনুর রশিদ লাভলু জানান, শুনানিকালে চার্জশীটভুক্ত আসামিদের মধ্যে ৯ জন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অপর আসামিদের মধ্যে চারজন পলাতক রয়েছে।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীকে সহায়তা করেন জেলা বারের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোল্লা হাবিবুর রাছুল, বাংলাদেশ মহিলা আইনজীবী সমিতির স্থানীয় প্রতিনিধি অ্যাডভোকেট কল্পনা রানী দাসসহ কয়েকজন আইনজীবী। অপরদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট শাহাদাত হোসেন ও অ্যাডভোকেট সহিদ উল্যাহ।

উল্লেখ্য, উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকার জনৈক ব্যক্তির মেয়ের সাথে স্বামীর মনোমালিন্য ছিল দীর্ঘদিন। স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করায় তিনি বাবার বাড়িতে চলে আসেন। তিনি এক মেয়ে ও এক ছেলের জননী। একাকিত্বের এ সুযোগে স্থানীয় দেলোয়ার ও তার সহযোগীরা ওই নারীকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। গত বছরের ২ সেপ্টেম্বর রাতে ওই গৃহবধূর স্বামী শ্বশুরবাড়িতে আসেন। তারা ঘরে অবস্থানকালে স্বামীসহ গৃহবধূকে আটক করে অভিযুক্তরা ব্যাপক নির্যাতন চালান। তারা স্বামীকে বেঁধে রেখে অবৈধ সম্পর্কের কথা বলে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করেন। এ সময় ওই নারীর বিবস্ত্র নির্যাতনের নগ্ন ভিডিও ধারণ করেন নির্যাতনকারীরা। তার পর থেকে নির্যাতিতার পরিবারকে অবরুদ্ধ করে রাখেন তারা। এক পর্যায়ে নির্যাতিতাকে বাড়িঘর ছাড়তে বাধ্য করেন। নির্যাতিতার কাছ থেকে টাকা দাবি করেন তারা, টাকা না দিলে তারা ফেসবুকে নগ্ন ছবিগুলো ছেড়ে দেয়ার হুমকি দেন। ঘটনার ৩২ দিন পর ৪ অক্টোবর ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিবস্ত্র নির্যাতনের আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হলে সর্বত্র তোলপাড় সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বেগমগঞ্জ থানায় দুটি পৃথক মামলা দায়ের করেন।


-জেডসি