ঢাকা, রবিবার ২৯, নভেম্বর ২০২০ ১৩:৫২:২৮ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
বিরোধী দলে থেকেও দেশের উন্নয়নের কথা ভেবেছি: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু রেল সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী ডেঙ্গু রোগের কার্যকর ওষুধ আবিষ্কার করল বাংলাদেশ স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র চায় বাংলাদেশ জাপানে করোনার চেয়ে এক মাসে আত্মহত্যায় বেশি মৃত্যু! বিশ্বে করোনায় একদিনে প্রায় ১১ হাজার মৃত্যু

বিশ্বে করোনা আক্রান্ত চার কোটি ১১ লাখ ছাড়াল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ১১:৩১ এএম, ২২ অক্টোবর ২০২০ বৃহস্পতিবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা চার কোটি ১১ লাখ ছাড়িয়েছে। একই সময় বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছে ১১ লাখ ২৯ হাজার ৭১০ জন। আর বিশ্বে করোনা থেকে সেরে উঠেছেন প্রায় দুই কোটি ৮০ লাখ।

আজ বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টা পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে মোট করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা সংখ্যা ৪ কোটি ১১ লাখ ১৮ হাজার ৬৪ জন। জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুযায়ী,

বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৮৩ লাখ ৩০ হাজার ৪৮৪ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছে ২ লাখ ২১ হাজার ৯৯০ জন।

ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় ভারতের অবস্থান দ্বিতীয়। ভারতে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৭৬ লাখ ৫১ হাজার ১০৭ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ১ লাখ ১৫ হাজার ৯১৪ জন।

ব্রাজিল আছে তৃতীয় অবস্থানে। ব্রাজিলে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৫২ লাখ ৭৩ হাজার ৯৫৪ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ১ লাখ ৫৪ হাজার ৮৩৭ জন।

তালিকায় রাশিয়ার অবস্থান চতুর্থ। আর্জেন্টিনা পঞ্চম। স্পেন ষষ্ঠ। ফ্রান্স সপ্তম। কলম্বিয়া অষ্টম। পেরু নবম। মেক্সিকো দশম। তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ১৭তম।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। দেশটিতে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যু হয় ৯ জানুয়ারি। তবে তার ঘোষণা আসে ১১ জানুয়ারি। এরপর ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে বিভিন্ন দেশে করোনা ছড়িয়ে পড়ে।

করোনার প্রাদুর্ভাবের পরিপ্রেক্ষিতে ৩০ জানুয়ারি বৈশ্বিক স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

২ ফেব্রুয়ারি চীনের বাইরে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ফিলিপাইনে। ১১ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাভাইরাস থেকে সৃষ্ট রোগের নামকরণ করে ‘কোভিড-১৯ ’। ১১ মার্চ করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

বাংলাদেশ পরিস্থিতি: স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বুধবারের তথ্য অনুযায়ী, গতকাল পর্যন্ত দেশে মোট নিশ্চিত আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৯৩ হাজার ১৩১ জন। গতকাল পর্যন্ত দেশে মোট ৫ হাজার ৭২৩ জনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছে সরকার। মোট আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা বিবেচনায় দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৬ শতাংশ। এখন পর্যন্ত ৩ লাখের বেশি মানুষ ইতিমধ্যে সুস্থ হয়েছেন। সুস্থ হওয়ার হার ৭৮ দশমিক ৫৬ শতাংশ।

গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্তের কথা জানানো হয়। এর ১০ দিনের মাথায় ১৮ মার্চ করোনায় প্রথম মৃত্যুর তথ্য জানায় সরকার।

বাংলাদেশে মার্চের শুরুর দিকে সংক্রমণ শনাক্ত হলেও দ্রুত ছড়াতে শুরু করে মে মাসের মাঝামাঝি গিয়ে। জুনে সংক্রমণ তীব্র আকার ধারণ করে। মাস দুয়েক ধরে নতুন রোগী ও রোগী শনাক্তের হার কমছে। তবে এখন আবার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

শুরুর দিকে মৃত্যু কম হলেও ক্রমে তা বাড়তে থাকে। ৪ এপ্রিল থেকে প্রতিদিন করোনায় মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। এর মধ্যে জুন, জুলাই, আগস্টে মৃত্যুর ঘটনা ছিল বেশি। সেপ্টেম্বর থেকে মৃত্যু কমেছে। তবে এখনো প্রতিদিন ২০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হচ্ছে।

-জেডসি