ঢাকা, রবিবার ১৭, নভেম্বর ২০১৯ ২০:৩৯:৩৩ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
সরকারি ব্যয়ে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে: স্পিকার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিলো বিএনপি প্রাথমিক-ইবতেদায়ি পরীক্ষা শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত আদাবরে স্ত্রী খুন, স্বামী পলাতক চট্টগ্রামে বিস্ফোরণের ঘটনায় ৫ সদস্যের কমিটি গঠন

বিয়ের পরদিন টাকা-স্বর্ণালংকার নিয়ে পালালো নববধূ

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৫:২৬ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শনিবার

নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ পালিয়েছেন নববধূ। ছবি : সংগৃহীত

নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ পালিয়েছেন নববধূ। ছবি : সংগৃহীত

১০ লাখ টাকা দেনমোহরে প্রতিবেশী প্রবাসীকে বিয়ের পরদিন সকালে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ প্রেমিকের সঙ্গে পালানোর অভিযোগ উঠেছে সুবর্ণা আক্তার (২৬) নামে এক নববধূর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের খোদাদিয়া গ্রামে।

এ বিষয়ে মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসী স্বামী মো. মহসিন সুমন বাদী হয়ে গত মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) কাপাসিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, উপজেলা সদরের খোদাদিয়া গ্রামের আইনজীবী সহকারী মো. রেজাউল হকের মালয়েশিয়া প্রবাসী পুত্র মো. মহসিন সুমন উভয় পরিবারের সম্মতিতে জয়নাল আবেদীনের অনার্স পড়ুয়া কন্যা সুবর্ণা আক্তারকে বিয়ে করে। ওইদিন রাতেই নববধূকে সুমন তাদের বাড়িতে নিয়ে আসে। পরদিন সকালে বাইরে থেকে দরজা আটকিয়ে পালিয়ে যায়।

মামলার বিবরণে আরও জানা যায়, এ সময় বিয়ে উপলক্ষে দুই লাখ টাকার স্বর্ণালংকারসহ ঘরের আলমারিতে রাখা নগদ তিন লাখ ২০ হাজার টাকা, এক ভরি ওজনের একটি স্বর্ণের চেইন ও চার আনা ওজনের একটি আংটিসহ তিন লাখ ৭৮ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে নববধূর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা নানা কথা বলে তালবাহানা করতে থাকে। পরবর্তীতে জানা যায় তার পূর্বপরিচিত এক প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়েছে। তাকে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করেছে উল্লেখ করে সুর্বণার বড়বোন শামীমা আক্তার ও বোনের স্বামী পারভেজসহ অজ্ঞাতনামা আসামিদের নামে থানায় মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগী সুমন।

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাপাসিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মেহেদী হাসান জানান, মামলার তদন্ত কার্যক্রম চলছে। ইতিমধ্যে গত ১১ সেপ্টেম্বর সুবর্ণা আক্তার গাজীপুরের নোটারী পাবলিক ও নিকাহ রেজিস্টারের মাধ্যমে স্বামী মহসিন সুমনকে তালাকের নোটিশ প্রদান করেছে।

মহসিন সুমনের চাচা অ্যাডভোকেট এমদাদুল হক লাল জানান, পূর্বপরিকল্পিতভাবে প্রতিবেশী আসামিরা যোগসাজসে প্রতারণা ও বিশ্বাসভঙ্গ করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার আত্মসাৎ করেছে। নববধূ ও তার পরিবার প্রেমের সম্পর্ক গোপন করেছে এবং ইতিপূর্বেও তার একাধিক সম্পর্কের কথা জানা গেছে।

জয়নাল আবেদীনের পরিবার আত্মসাৎকৃত টাকা ও স্বর্ণালংকার ফিরিয়ে দিবে বলে সময়ক্ষেপন করছে বলে সুমনের পরিবারের দাবি।