ঢাকা, রবিবার ১৯, জানুয়ারি ২০২০ ৩:৩০:৫১ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
অনশন ভাঙল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা পেছালো অবশেষে পেছালো ঢাকা সিটি নির্বাচন লিবিয়ায় সহিংসতার কারণে ঝুঁকিতে শিশুরা: ইউনিসেফ সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত শাবানা আজমি

ব্রিটেনে নির্বাচন, চলছে শেষ মুহূর্তের প্রচারণা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৩:২০ পিএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ বুধবার

ব্রিটেনে আগামীকাল বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হচ্ছে দেশটির ইতিহাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন।

ব্রিটেনে আগামীকাল বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হচ্ছে দেশটির ইতিহাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন।

ব্রিটেনে আগামীকাল বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হচ্ছে দেশটির ইতিহাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন। আজ বুধবার চলছে শেষ মহূর্তের প্রচার প্রচারণা।
রক্ষণশীল দলের নেতা ও ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এবং প্রধান বিরোধী লেবার দলের নেতা জেরেমি করবিন বিরতিহীনভাবে প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পাড় করছেন।
বেক্সিট নিয়ে সৃষ্ট সংকট অবসানের লক্ষ্যে বৃহস্পতিবারের এ সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দেশটিতে ২০১৬ সালে এক গণভোটের মাধ্যমে জনগণ ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে মত দিলেও এখন পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন সম্ভব হয়নি। বরং বেক্সিট ইস্যু নিয়ে দেশটিতে একের পর এক রাজনৈতিক সংকট তৈরি হয়েছে।
নির্বাচনে জনসনের দল আশা করছে তারাই সরকার গঠন করবে এবং আগামী ৩১ জানুয়ারির মধ্যে তারা ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন করতে পারবে।
এদিকে জনসনের মধ্য-ডান রক্ষণশীল দলটি জনমত জরিপেও এগিয়ে রয়েছে। তবে বিশ্লেষকরা মনে করছেন রক্ষণশীল দল হয়তো একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না।
জনসন(৫৫) তার শেষ প্রচারণার দিনটি শুরু করেছেন উত্তর ইংল্যান্ডের ইয়র্কশ্যায়ারে। সেখানে তিনি প্রচারণায় বলেন, ব্রেক্সিট সংকট থেকে বেরুতে না পারলে আমাদের দেশের ভবিষ্যত অনিশ্চিতই থেকে যাবে। তাই ব্রেক্সিট বাস্তবায়নের সুযোগ দিন, যাতে পুরো যুক্তরাজ্য জুড়ে সুযোগ ও সম্ভাবনা ছড়িয়ে পড়তে পারে।
অন্যদিকে লেবার দলীয় করবিন(৭০) মিডেলবার্গের এক নির্বাচনী প্রচারণায় কথা বলেন। তিনি বৃহস্পতিবারের নির্বাচনকে এ সময়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেন।
দ্য ব্রিটেন ইলেক্টস পরিচালিত জনমত জরিপে বলা হয়েছে, এ নির্বাচনে রক্ষণশীলা ৪৩ শতাংশ, লেবার দল ৩৩ শতাংশ, লিবারেল ডেমোক্রেটস ১৩ শতাংশ ভোট পাবে।