ঢাকা, রবিবার ১৭, নভেম্বর ২০১৯ ২৩:৩৩:২১ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
বাংলাদেশীদের জন্য আমিরাতের শ্রমবাজার খুলে দেয়ার ইঙ্গিত সরকারি ব্যয়ে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে: স্পিকার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিলো বিএনপি প্রাথমিক-ইবতেদায়ি পরীক্ষা শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত চট্টগ্রামে বিস্ফোরণের ঘটনায় ৫ সদস্যের কমিটি গঠন

ব্রেক্সিট চুক্তিকে ক্ষতিকর বললেন টিউলিপ সিদ্দিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৩:৫৩ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ শুক্রবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) ও ব্রিটেনের মধ্যকার নতুন ব্রেক্সিট চুক্তিকে ক্ষতিকর বললেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ সংসদ সদস্য টিউলিপ সিদ্দিক। খবর ডয়চে ভেলের।

ব্রেক্সিট নিয়ে অনেক আলোচনার পর বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) ইইউ ও ব্রিটেন এ সংক্রান্ত এক নতুন চুক্তির খসড়া প্রস্তুত করেছে। শনিবার (১৮ অক্টোবর) ব্রিটিশ সংসদে এই চুক্তি অনুমোদন করার জন্য উত্থাপন করা হবে। তবে, অনুমোদনের ভোটাভুটির আগে মাত্র ৯০ মিনিট এই বিষয়ে বিতর্কের সুযোগ পাবেন সংসদ সদস্যরা; যা যথেষ্ট নয় বলে মনে করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট বোন শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ সিদ্দিক।

বৃহস্পতিবার টুইটারে ব্রিটিশ লেবার পার্টি এবং কো-অপারেটিপ পার্টির রাজনীতিবিদ টিউলিপ সিদ্দিক লেখেন, এটা অত্যন্ত অমর্যাদাকর একটি ব্যাপার যে- চুক্তিটি নিয়ে শনিবার ভোটাভুটির আগে আমাদেরকে মাত্র ৯০ মিনিট সময় দেয়া হবে। এটা হচ্ছে- বর্তমান সরকারের তৈরি ক্ষতিকর ব্রেক্সিট চুক্তির বিষয়ে বিতর্কে সুযোগ না দেয়ার সবশেষ উদাহরণ। আমাদের দেশের ভবিষ্যৎ সঙ্কটাপন্ন।

এদিকে ব্রিটেনের প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির প্রধান জেরেমি করবিন বলেন, তার দল সংসদে নতুন এই ব্রেক্সিট চুক্তির পক্ষে ভোট দেবে না। এই বিশ্বাসঘাতকতামূলক চুক্তি আমাদের দেশকে ঐক্যবদ্ধ করবে না। এটি প্রত্যাখ্যান করা উচিত। ব্রেক্সিট সঙ্কট সমাধান করার সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে, জনগণের চূড়ান্ত মতামত জানতে আবারো গণভোটের আয়োজন করা।

জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো মাস এই ব্রেক্সিট চুক্তির নতুন খসড়াকে কূটনৈতিক সাফল্য হিসেবে আখ্যা দিয়েছে। বার্লিনে সাংবাদিকদেরকে তিনি বলেন, এই চুক্তি এটাই প্রমাণ করে যে, আমরা সবাই দায়িত্ব নিয়ে একসাথে কাজ করেছি।

হাইকো মাস অবশ্য এটাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছে, চুক্তিটি নিয়ে এখনই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছানোর সুযোগ নেই। কারণ, এটি নিয়ে ইইউ নেতাদের বৈঠকে ও ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টে আলোচনা এখনো বাকি রয়েছে।


-জেডসি