ঢাকা, সোমবার ২০, জানুয়ারি ২০২০ ১৫:০৬:২৫ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
এমপি মান্নানের মরদেহে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা অভিনেত্রী ইশরাত নিশাত মারা গেছেন বসবাসের জন্য ভারতের চেয়ে নিরাপদ বাংলাদেশ মুজিববর্ষের লোগো ব্যবহারের নির্দেশিকা প্রকাশ সিটি নির্বাচনের জন্য পেছালো বইমেলা চীনে শক্তিশালী ভূমিকম্পের আঘাত

রেলস্টেশনে ফেলে যাওয়া সেই শতবর্ষী নারী এখন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

অনলাইন ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০১:০৬ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০২০ মঙ্গলবার

চাঁপাই্নবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর রেলস্টেশনে স্বজনরা শতবর্ষী এক নারীকে রেখে চলে যান। বর্তমানে তিনি গোমস্তাপুর থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ চিকিৎসাধীন আছেন। তার অবস্থার ধীরে ধীরে উন্নতি হলেও তিনি আশংকামুক্ত নন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। 

আমাদের চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, রবিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর রেলস্টেশন থেকে এমনই এক বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে পুলিশ ও স্থানীয়রা।


স্থানীয়রা জানায়, ১৫ দিন আগে শতবর্ষী এ মাকে কনকনে শীতের মধ্যে স্টেশনে ফেলে গেছে তার ছেলে ও ছেলের বউ। কঙ্কালসার শরীর নিয়ে স্টেশনের পরিত্যক্ত প্ল্যাটফর্মে পড়েছিলেন তিনি। বৃদ্ধাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া পুলিশ সদস্য তৌহিদুল ইসলাম বলেন, প্লাটফর্মে খুবই কষ্ট পাচ্ছিলেন ওই মা। নিজেকে তার সন্তান মনেই করেই হাসপাতালে নিয়ে আসি।

স্থানীয় সিরাজুল ইসলাম বলেন, একটি ভ্যানে করে ওই বৃদ্ধাকে নিয়ে এসে স্টেশনে ফেলে যান একজন নারী ও একজন পুরুষ। আমি তখন স্টেশনেই উপস্থিত ছিলাম। চলে যাওয়ার সময় তাদের ডেকেছিলাম। কিন্তু তারা সাড়া না দিয়ে চলে যায়। রোববার প্রচণ্ড অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই বৃদ্ধা। পরে পুলিশ ও স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালে তার সঙ্গে আছেন মালতী নামে এক নারী। তিনি জানান, চিকিৎসা পেয়ে কিছুটা সাড়া দিচ্ছেন ওই বৃদ্ধা। ইশারা ও অস্পষ্ট ভাষায় কথা বলছেন। তার কথা এবং ইশারায় সন্তানদের প্রতি তীব্র ক্ষোভ ফুটে উঠছে।

মালতী বলেন, আমি তাকে বলেছি- ‘খালা, তোমার ছেলে এসেছে। চোখ খোলো।’ তিনি তখন ইশারায় ছেলেকে চলে যেতে বলছেন।

গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা. সালাউদ্দিন আহমেদ বলেন, হাসপাতালে আনার পর ওই বৃদ্ধার রক্তচাপ ও পালস অস্বাভাবিক ছিলো। চিকিৎসা পেয়ে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে। অপুষ্টি ও অপরিচ্ছন্নতা থেকেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন।

ওই বৃদ্ধার চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন রহনপুর পৌরসভার মেয়র তারিক আহম্মদ। তিনি বলেন, ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। মাকে এভাবে ফেলে যাওয়ার মতো জঘন্য কাজ কোনো ছেলে করতে পারে জানা ছিল না। খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ছুটে এসেছি। শতবর্ষী এ মায়ের চিকিৎসার যাবতীয় খরচ আমি বহন করবো। তার সন্তানকে খুঁজে বের করে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করবো।

: এমি।