ঢাকা, শুক্রবার ২০, সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৮:০২:৩০ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
নয়নের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের কথা স্বীকার মিন্নির, দিলেন বর্ণনা যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা ত্যাগ খুলনা মেডিকেলে ডেঙ্গু জ্বরে গৃহবধূর মৃত্যু

রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে চীনের ভূমিকা আরও জোরালো হবে

অনলাইন ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৮:০৪ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ বুধবার

রোহিঙ্গাদের শান্তিপূর্ণ প্রত্যাবাসনে চীনের ভূমিকা আরও জোরালো হবে বলে জানিয়েছেন চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং। আজ বুধবার জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী’র সাথে তার কার্যালয়ে চীনের রাষ্ট্রদূত সৌজন্য সাক্ষাৎ করেতে এলে এই কথা জানান।

বাংলাদেশকে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বন্ধুপ্রতীম দেশ হিসেবে অভিহিত করে চীনের রাষ্ট্রদূত বলেন, পারস্পারিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রতিবেশী দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। আঞ্চলিক সংযোগ বৃদ্ধি এ অঞ্চলের সকল দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি বয়ে আনবে।

সাক্ষাৎকালে তারা রোহিঙ্গাদের শান্তিপূর্ণ নিরাপদ প্রত্যাবাসন, বাংলাদেশে বিনিয়োগ ও দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের প্রসার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে চীনের আরও শক্তিশালী ভূমিকা রাখা দরকার উল্লেখ করে স্পিকার বলেন, রোহিঙ্গা নাগরিকরা যাতে নির্ভয়ে নিজ দেশে স্থায়ী ও শান্তিপূর্ণভাবে প্রত্যাবর্তন করতে পারে সেটা নিশ্চিত করে মানবিক এ সমস্যা সমাধানে চীনকে ভূমিকা রাখতে হবে।

চীনের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে স্পিকার শিরীন শারমিন বলেন, বাংলাদেশের সাথে চীনের এ সম্পর্ক ভবিষ্যতে আরও জোরদার করা হবে। বাংলাদেশের অন্যতম উন্নয়ন অংশীদার চীন।

এ সময়ে স্পিকার বাংলাদেশের অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও বাণিজ্যে চীনের ভূমিকার প্রশংসা করেন এবং সকল সহযোগিতা অব্যাহত রাখার অনুরোধ জানান।

পদ্মা ব্রীজ বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের নতুন দিগন্তের সূচনা করবে উল্লেখ করে শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, চীনের কারিগরী সহায়তা নিয়ে পদ্মা ব্রীজ নির্মিত হচ্ছে। রাজধানীর সাথে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের যোগাযোগ বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে চীন বেশ আন্তরিক। ভবিষ্যতে দু’দেশের সংসদ সদস্যদের সফর বিনিময় এ সম্পর্কে নতুন মাত্রা যোগ করবে।

চীন সফরের স্মৃতিচারণ করে স্পিকার বলেন, উক্ত সফরে ন্যাশনাল পিপলস কংগ্রেস অব চীনের স্পিকার তাকে বেইজিং এ উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান।

এসময় বাংলাদেশস্থ চীন দূতাবাসের কর্মকর্তাবৃন্দ এবং সংসদ সচিবালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।