ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৪, নভেম্বর ২০১৯ ১৪:১৮:০৩ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
সব ধরনের রেনিটিডিন ওষুধ বিক্রি স্থগিত চ্যারিটেবল দুর্নীতি মামলা: জামিন চেয়ে খালেদার আপিল ৬৯ বার পেছালো সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন ক্ষুদ্র ঋণ দারিদ্র্য বিমোচন নয়, লালন করে: প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা নিপীড়নে আর্জেন্টিনায় সু চি’র বিরুদ্ধে মামলা

সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন দুফলো

ডেস্ক রিপোর্ট | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৫:১০ পিএম, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ সোমবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

ফরাসী বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক এস্তার দুফলোসহ চলতি বছর অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন আরো দুই আমেরিকান। ৫০ বছর আগে অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার দেয়া শুরু হওয়ার পর থেকে দ্বিতীয় নারী হিসেবে এই পুরস্কার পেলেন দুফলো। এমনকি সর্বকনিষ্ঠ অর্থনীতিবিদ হিসেবে অর্থনীতিতে নোবেল পাওয়ার কৃতিত্বও দেখালেন তিনি। ৪৬ বছর বয়সে নোবেল জিতলেন দুফলো। এদিকে, দুফলোর স্বামী ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক অভিজিত ব্যানার্জিও নোবেল পেয়েছেন।  অপর বিজয়ী মাইকেল ক্রেমার যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ও হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক।

বাংলাদেশ সময় সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টায় রয়্যাল সুইডিশ একাডেমি অব সায়েন্সেস এ পুরস্কার ঘোষণা করেন। বৈশ্বিক দারিদ্র্য দূরীকরণে পরীক্ষামূলক গবেষণার জন্য তাদের এই নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয়।

অভিজিত ব্যানার্জি যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (এমআইটি) অধ্যাপক। এছাড়া ইসথার দুফলোও এমআইটির অধ্যাপক এবং মাইকেল ক্রেমার যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ও হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক।

দুফলো গবেষণার মূল বিষয় উন্নয়ন অর্থনীতি, যেখানে তিনি স্বাস্থ্য, শিক্ষা, জেন্ডার, রাজনীতি ও ঋণগ্রহণের ব্যবস্থার উপর জোর দিয়েছেন। তিনি এমআইটিতে অভিজিৎ ব্যানার্জির সাথে পভার্টি অ্যাকশন ল্যাবের সহ-পরিচালক। তিনি অর্থশাস্ত্রে কার্য-কারণ সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে মাঠ পরীক্ষাকে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতি হিসেবে প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন।

দুফলো তার গবেষণার জন্য ২০০৩ সালে মার্কিন অর্থনৈতিক অ্যাসোসিয়েশনের কাছ থেকে ইলেইন বেনেট পুরস্কার লাভ করেন। পুরস্কারটি চল্লিশ বছরের কম বয়সের প্রতিভাবান মহিলা অর্থনীতিবিদদের দেওয়া হয়ে থাকে। ২০০৫ সালে ফ্রান্সের পত্রিকা ল্য মোঁদ তাকে "সেরা তরুণ ফরাসি অর্থনীতিবিদ" পুরস্কার প্রদান করে।

বহুভাষী দুফলো ফরাসি, ইংরেজি, রুশ ও জার্মান ভাষায় কথা বলতে পারেন।  অ্যামেরিকান ইকোনমিক জার্নাল: অ্যাপ্লায়েড ইকোনমিক্‌স গবেষণা পত্রিকার সহ-প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক এবং রিভিউ অভ ইকোনমিক্‌স অ্যান্ড স্ট্যাটিস্টিক্‌স গবেষণা পত্রিকার সহসম্পাদক। এছাড়া তিনি ফরাসি পত্রিকা লিবেরাসিওঁতে নিয়মিত মাসিক কলাম লিখে থাকেন।

২০০৮ সালের মে মাসে মার্কিন ম্যাগাজিন ফরেন পলিসি তাকে বর্তমান বিশ্বের সেরা ১০০ বুদ্ধিজীবীর একজন হিসেবে নির্বাচিত করে।

একজন ফরাসি অর্থনীতিবিদ। তিনি বর্তমানে ম্যাসাচুসেট্‌স ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজিতে দারিদ্র্য বিমোচন ও উন্নয়ন অর্থনীতিতে অধ্যাপক। আবদুল লতিফ জামিল প্রভার্টি একশন এইড-এর প্রতিষ্ঠাতা এবং পরিচালক। দুফ্লো স্নাতক পর্যায়ে ফ্রান্সের একোল নর্মাল সুপেরিয়রে পড়াশোনা করেন। সেখানে তিনি প্রথমে ইতিহাস পড়া শুরু করেন ও পরে ফরাসি অর্থনীতিবিদ তোমা পিকেতির উপদেশে অর্থনীতিতে মনোযোগ দেন এবং উভয় বিষয়েই ১৯৯৪ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন। ১৯৯৯ সালে তিনি ম্যাসাচুসেটস ইন্সটিটিউট অভ টেকনোলজি থেকে অর্থশাস্ত্রে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন এবং সাথে সাথেই বিশ্ববিদ্যালয়টির অর্থনীতি বিভাগে যোগ দেন।

-জেডসি