ঢাকা, বুধবার ২২, জানুয়ারি ২০২০ ১৭:৪৮:৪৫ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
ই-পাসপোর্ট ‘মুজিব বর্ষে’ উপহার: প্রধানমন্ত্রী নেপালে নারী-শিশুসহ ৮ ভারতীয় পর্যটকের মৃত্যু ই-পাসপোর্ট উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শিক্ষকদের প্রশিক্ষণে প্রয়োজনে বিদেশে পাঠান: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী ইতালি যাচ্ছেন ৩ ফেব্রুয়ারি

স্কুলছাত্রী রিশা হত্যা মামলার রায় আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ১১:৪১ এএম, ৬ অক্টোবর ২০১৯ রবিবার

সুরাইয়া আক্তার রিশা

সুরাইয়া আক্তার রিশা

রাজধানীর উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশা হত্যা মামলার রায় আজ রবিবার ঘোষণা করা হবে। ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশের এই রায় ঘোষণা করার কথা রয়েছে। গত ১১ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপক্ষ এবং আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে আদালত রায় ঘোষণার এই তারিখ ধার্য করেন।

আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল বলেন, আসামি ওবায়দুল হক প্রকাশ্য দিবালোকে রিশাকে ছুরিকাঘাতের মাধ্যমে হত্যা করে। রাষ্ট্রপক্ষ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছে। তাই আমরা আসামির সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদ- হবে বলে আশা করছি।

রিশা রাজধানীর বংশাল থানাধীন সিদ্দিক বাজার এলাকার রমজান হোসেনের মেয়ে। ওবায়দুল দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের মীরাটঙ্গী গ্রামের মৃত আবদুস সামাদের ছেলে। তিনি রাজধানীর ইস্টার্ন মল্লিকা শপিং মলের বৈশাখী টেইলার্সের কর্মচারী ছিলেন। ঘটনার ছয় মাস আগে ওই টেইলার্সে স্কুলের ইউনিফর্ম বানাতে রিশা মায়ের সঙ্গে গিয়েছিল। সেখানে দেওয়া মোবাইল নম্বর পেয়ে রিশাকে উত্ত্যক্ত শুরু করে ওবায়দুল। একপর্যায়ে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় ২০১৬ সালের ২৪ আগস্ট দুপুরে উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের সামনের ফুট ওভারব্রিজে রিশাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় সে। পরে স্কুলের শিক্ষার্থীরা রিশাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই বছরের ২৮ আগস্ট ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে রিশা মারা যায়।

এ ঘটনায় ওই বছর ২৪ আগস্ট রিশার মা তানিয়া বেগম রাজধানীর রমনা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ওবায়দুলের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার মামলা করেন। রিশার মৃত্যুর পর মামলায় হত্যার ৩০২ ধারা সংযোজন করা হয়। ওই বছর ৩১ আগস্ট নীলফামারীর ডোমার উপজেলার সোনারগাঁও থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ওবায়দুলকে।