ঢাকা, শুক্রবার ২৩, অক্টোবর ২০২০ ২:১৩:০৪ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
দেশে করোনায় আরও ২৪ মৃত্যু জেব্রা ক্রসিংয়ের বাইরে কারো মৃত্যু হলে কেউ দায় নেবে না: প্রধানমন্ত্রী শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু, আজ ষষ্ঠী বিশ্বে করোনা আক্রান্ত চার কোটি ১১ লাখ ছাড়াল অক্সফোর্ডের টিকা নিয়ে প্রাণ গেল স্বেচ্ছাসেবকের

স্বস্তি ফেরেনি লাতিন আমেরিকায়, ব্রাজিলে আরও ৭১৬ মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০১:০১ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০২০ শনিবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

প্রকোপ দেখা দেয়ার দীর্ঘ কয়েক মাস পেরিয়ে গেলেও লাতিন আমেরিকায় এখনও স্বস্তি ফেরেনি করোনা পরিস্থিতির। এর মধ্যে ব্রাজিলে প্রতিদিনই সুস্থতা বাড়লেও আক্রান্তের তুলনায় তা অনেকটা কম। ফলে দীর্ঘ হচ্ছে ভুক্তভোগীর মিছিল। দেশটিতে নতুন করে স্বজন হারা হয়েছেন আরও ৭১৬ পরিবার। এতে করে মৃত্যুর মিছিল বেড়ে ১ লাখ ৫৩ হাজার অতিক্রম করেছে।

ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের নিয়মিত পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজার ৫৭৪ জন মানুষের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫২ লাখ ১ হাজার ৫৭০ জনে দাঁড়িয়েছে। নতুন করে প্রাণ হারিয়েছেন ৭১৬ জন। এতে করে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১ লাখ ৫৩ হাজার ২২৯ জনে ঠেকেছে।

অপরদিকে সুস্থতা লাভ করেছেন আরও ২০ হাজারের বেশি ভুক্তভোগী। এতে করে বেঁচে ফেরার সংখ্যা ৪৬ লাখ ১৯ হাজার ৫৬০ জনে পৌঁছেছে।

চলতি বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি দেশটির সাও পাওলো শহরে ৬১ বছর বয়সী ইতালি ফেরত এক জনের শরীরে ভাইরাসটি প্রথম শনাক্ত হয়। এরপর থেকেই অবস্থা ক্রমেই সংকটাপন্ন হতে থাকে। যেখানে আক্রান্ত ও প্রাণহানির তালিকায় অনেক চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী রয়েছেন।

তবে শুধু ব্রাজিলই নয়, করোনার ভয়াবহতা ছড়িয়ে পড়েছে গোটা লাতিন আমেরিকার অন্যান্য দেশগুলোতেও। যেখানে পূর্বের তুলনায় ভাইরাসটির দাপট অনেকটা বেড়েছে। এমন অবস্থায় করোনাকে বাগে আনতে দেশগুলোর সরকার মানুষকে ঘরে রাখতে চেষ্টা করছেন। কিন্তু অর্থনীতির চাকা সচল থাকা নিয়ে রয়েছে যত দুশ্চিন্তা। ফলে সংকটাবস্থার মধ্য দিয়ে ব্রাজিল, পেরু, চিলি, ইকুয়েডর ও আর্জেন্টিনার মতো দেশগুলোতে অনেক কিছুই চালু রয়েছে।

এর মধ্যে ব্রাজিলে সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থা। যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। দেশটিতে আক্রান্তদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে বেশ বিপাকে পড়তে হচ্ছে চিকিৎসা কেন্দ্রগুলোকে। অপরদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দ্বিতীয় দফায় করোনা আরও ভয়াবহ রূপ নিতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ইউরোপে ধ্বংসযজ্ঞ চালানোর পর ব্রাজিল ভাইরাসটির এখন প্রধানকেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। একই সঙ্গে এ অঞ্চলের অন্যান্য দেশগুলোতে দ্রুত বিস্তার লাভ করায় কলম্বিয়া, পেরু ও আর্জেন্টিনার মতো দেশগুলোর প্রত্যেকটিতে আক্রান্ত ৮ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

এর মধ্যে আর্জেন্টিনায় সংক্রমিতের সংখ্যা ৯ লাখ ৬৫ হাজার ৬০৯ জনে দাঁড়িয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ২৫ হাজার ৭২৩ জনের।

কলম্বিয়ায় শনাক্ত ৯ লাখ ৪৫ হাজারের বেশি। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ৬১৬ জনের।

পেরুতে আক্রান্ত ৮ লাখ ৬২ হাজার ৪১৭ জন। যেখানে মৃতের সংখ্যা ৩৩ হাজার ৬৪৮ জনে ঠেকেছে।

এছাড়া চিলিতে সংক্রমিত ৪ লাখ ৮৮ হাজার ১৯০ জন মানুষ। এর মধ্যে ১৩ হাজার ৫২৯ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা।

-জেডসি