ঢাকা, শুক্রবার ১০, জুলাই ২০২০ ৩:১৫:২৬ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

দেশে আরো ৫ করোনা রোগী শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ৬১

নিজস্ব প্রতিবেদক

উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০১:১৮ পিএম, ৩ এপ্রিল ২০২০ শুক্রবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে আরো পাঁচজনের শরীরে প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এই নিয়ে দেশে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৬১ জনে। এছাড়া, নতুন করে কারও মৃত্যুর তথ্য না আসায় সংখ্যাটা আগের মতো ছয়জনই আছে।

গত ২৪ ঘণ্টার করোনাভাইরাস মহামারীর সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে শুক্রবার (০৩ এপ্রিল) অনলাইন ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এই সব তথ্য জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত ২৯ জনের মধ্যে সাতজন বাড়িতে এবং ২২ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৫১৩ জনের করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, সবার করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা খুবই জরুরি। সবাই পরীক্ষা করতে আসবেন। এতে নিজেদের পাশাপাশি পরিবারকেও সুরক্ষা দিতে পারবেন। এছাড়া করোনা পরীক্ষার জন্য ঢাকায় নয়টি এবং ঢাকার বাইরে পাঁচটি ল্যাব প্রস্তুত রয়েছে।

প্রাইভেট হাসপাতালগুলোতে কাজ কম হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই সময়ে পিছপা হওয়া উচিত না। চিকিৎসা করা উচিত।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা অনুসারে আমরা পরীক্ষা বাড়িয়ে দিয়েছি।তবে এ পর্যন্ত সব জেলা থেকে তথ্য সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি জানিয়ে তিনি বলেন, আইইডিসিআরের বাইরের ল্যাবলেটরিগুলোতে তিনটি পজেটিভ পেয়েছি। তাদের আইসোলেশন ও কীভাবে তারা আক্রান্ত হয়েছেন, সেই অনুসন্ধান শুরু করে দিয়েছি।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। সেদিন তিনজনের শরীরে করোনা শনাক্তের কথা জানানো হলেও পরে এই তালিকায় যোগ হয় আরও ৫৬ জনের নাম। গতকাল পর্যন্ত সর্বমোট ৫৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে আইইডিসিআরের পক্ষ থেকে জানানো হয়। তাদের মধ্যে ছয়জন মারা যান। আর সংক্রমণমুক্ত হন ২৬ জন।

করোনাভাইরাস নিয়ে বিশ্বব্যাপী আতঙ্কের মাত্রা এখন তুঙ্গে। আর তাই মহামারী আকারে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা মোকাবেলায় বিভিন্ন দেশ নিচ্ছে নানা রকম পদক্ষেপ। বিভিন্ন দেশের সরকার প্রধানরা রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছেন এ ভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায়। বিশ্বের ২০০টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস।এই ভাইরাসের গতি আরও বাড়ছে বলে হুঁশিয়ার করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

এদিকে, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৫৩ হাজার ১৯০ জনে এবং আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লাখ ১৫ হাজার ৪৬৬ জন। অপরদিকে, ২ লাখ ১২ হাজার ২২৯ জন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। উৎপত্তিস্থল চীনে ৮০ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হলেও সেখানে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কমে গেছে। তবে বিশ্বের অন্যান্য দেশে এই ভাইরাসের প্রকোপ বাড়ছে। চীনের বাইরে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে গত ১১ মার্চ দুনিয়াজুড়ে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

-জেডসি