ঢাকা, শনিবার ০২, মার্চ ২০২৪ ১৭:০৬:৩২ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

বিউটি পার্লারে থেকে সেজে ছিনতাই করেন মুক্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক

উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ১২:২৮ পিএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ সোমবার

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

রাজধানীর মিরপুরপুরে অভিনব কৌশলে ছিনতাইয়ের অভিযোগে এক নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  পুলিশ বলছে, দেখতে সুন্দরী এই নারীর নাম মুক্তা বেগম। ছিনতাইয়ের আগে তিনি বিউটি পার্লারে গিয়ে সাজেন। এরপর বিভিন্ন মার্কেটে গিয়ে গায়ে পরে ক্রেতাদের সঙ্গে ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়েন। এরপরই কৌশলে টাকা পয়সা নিয়ে সটকে পড়েন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোহাম্মদ মহসীন। 

তিনি বলেন, পুলিশের খাতায় তালিকাভুক্ত শীর্ষ নারী ছিনতাইকারী মুক্তা (৪০)। রবিবার সন্ধ্যায় মিরপুর মডেল থানার ১০ নম্বরের ওয়াসা ভবনের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। 

ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, মুক্তা মার্কেটে গিয়ে কোন মেয়ের সাথে ঝগড়া বাঁধিয়ে দেন, এরপর সুযোগ বুঝে মোবাইল, টাকা হাতিয়ে পালিয়ে যান। তার বিরুদ্ধে রাজধানীর বিভিন্ন থানায় ৭ টি মামলা রয়েছে। তিনি ৭ বার গ্রেফতার  হয়ে ছিলেন। তিনি প্রথম তার মায়ের কাছ থেকে চুরি করা শেখেন। মায়ের সাথে থেকেই টুকটাক চুরি শিখে চুরি করতেন। কিন্তু মা অসুস্থ হয়ে শয্যাশায়ী হয়ে পরলে নিজেই দল গঠন করেন মুক্তা। সাথে একজনকে নিয়ে পুরো ঢাকা শহরে ছিনতাই শুরু করেন। মানুষের সন্দেহ এড়াতে তিনি অভিনব এক কৌশল গ্রহণ করেন। প্রতিবার ছিনতাইয়ে বের হওয়ার আগে বিউটি পার্লারে গিয়ে সেজে আসেন তিনি। বিউটি পার্লারের সাজ এবং বেশভূষা দেখে উচ্চবিত্ত মহিলা মনে হওয়ায় সহজেই কেউ সন্দেহ করে না তাকে। আর এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে ছিনতাই করে যাচ্ছেন মুক্তা। 

মহসীন বলেন, আজও একই কায়দায় শাওন আফরোজ নামের এক মেয়ের মোবাইল ও ব্যাগ নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন মুক্তা। কিন্তু মেয়েটির  চিৎকারে আশেপাশের লোক এসে তাকে আটক করে। পরে ৯৯৯ এ ফোন করলে মিরপুর মডেল থানা পুলিশের একটি দল তাকে গ্রেফতার করে।। গ্রেফতারকৃতর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন।