ঢাকা, সোমবার ০১, মার্চ ২০২১ ৯:৪৪:৪৩ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

করোনাকাল: এক ভিন্ন রূপে হিমালয়কন্যা নেপাল

ফিচার ডেস্ক

উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ১২:৩০ এএম, ১৭ মে ২০২০ রবিবার

করোনাকাল: হিমালয়কন্যা নেপালে এক ভিন্ন রূপ

করোনাকাল: হিমালয়কন্যা নেপালে এক ভিন্ন রূপ

ঘাতকব্যাধি করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে যখন প্রাণ গেছে লক্ষাধিক মানুষের তখন নেপালের চিত্র একদমই ভিন্ন। নেপালে এখন পর্যন্ত মাত্র ২৬৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু সংখ্যা শূন্যের কোঠায়। ইতিমধ্যে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়েছেন ৩৬ জন। পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় সরকারের ব্যাপক প্রস্তুতির কারণেই দেশটি করোনার বিস্তার রোধে সফলতা পেয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

বিশ্বজুড়ে করোনায় প্রতিদিনই হাজার হাজার প্রাণহানি হচ্ছে। সংক্রমণ ঠেকাতে হিমশিম খাচ্ছে উন্নত দেশগুলো।

হিমালয়কন্যা নেপালে অবশ্য চিত্রটা একেবারেই আলাদা। করোনার উৎপত্তিস্থল চীনের সীমান্তবর্তী দেশটিতে এখন পর্যন্ত একজনও করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাননি।

নেপালে জানুয়ারিতে প্রথমবারের মতো করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এরপরই দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণাসহ একাধিক পদক্ষেপ নেয় সরকার।

একজন পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, সরকারি ঘোষণার পর থেকেই আমরা মানুষকে সচেতন করেছি। তারা যাতে নিজের জীবনের নিরাপত্তা সবার আগে নিশ্চিত করে, বাসায় থাকে, সেটা বার বার বলা হচ্ছে। সবাই যদি বাসায় থাকি তাহলে ভাইরাসটি ছড়াতে পারবে না।

করোনার বিস্তার রোধে ভারত ও চীনের সঙ্গে বন্ধ করে দেয়া হয় দীর্ঘ সীমান্ত। এছাড়াও বন্ধ করা হয় আকাশপথে যোগাযোগ। সেনা সদর দপ্তরে গড়ে তোলা হয় কোয়ারেন্টিন জোন। সেখানে একাধিক আইসোলেশন রুম, নিয়মিত চেক আপ রুমেরও ব্যবস্থা করা হয়।

স্থানীয় গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, প্রায় তিন কোটি জনসংখ্যার দেশটিতে ভাইরাসটির বিস্তার ঠেকানো গেলেও লকডাউন ও পর্যটন বন্ধ রাখায় অর্থনেতিকভাবে চাপে রয়েছে নেপাল। তবে, আশার কথা হচ্ছে মন্দা কাটাতে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি উদ্যোক্তারা এগিয়ে আসছেন।