ঢাকা, বুধবার ২১, অক্টোবর ২০২০ ৪:৪১:৪০ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
করোনায় প্রাণ গেল আরও ১৮ জনের মাধ্যমিক স্কুলে মূল্যায়ন কীভাবে: শিক্ষামন্ত্রী জানাবেন কাল কোয়ারেন্টিনে রাখার ব্যর্থতায় করোনা আক্রান্ত বাড়ছে: হু সঠিক পদক্ষেপ নেয়ায় করোনায় মৃত্যুর হার কম: প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে করোনা আক্রান্ত ছাড়াল ৪ কোটি ৬ লাখ

ভারতে একদিনে করোনা শনাক্ত ৯২ হাজার, মৃত্যু ১১৩৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০২:৩১ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ সোমবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

ভারতে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে ২৪ ঘণ্টায় ৯২ হাজার ৭১ জন আক্রান্ত হয়েছে। একইসময়ে ১ হাজার ১৩৬ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রবিবার সকাল ৮টা থেকে আজ সোমবার সকাল ৮ টা পর্যন্ত এক পরিসংখ্যানে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ওই তথ্য জানিয়েছে।

সরকারি সূত্রে প্রকাশ, দেশে এ পর্যন্ত মোট ৪৮ লাখ ৪৬ হাজার ৪২৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৭৯ হজার ৭২২ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। মোট ৩৭ লাখ ৮০ হাজার ১০৭ জন চিকিৎসা থেকে ছাড়া পাওয়ায় বা সুস্থ হওয়ায় বর্তমানে ৯ লাখ ৮৬ হাজার ৫৯৮ জন সক্রিয় করোনা রোগী হাসপাতাল অথবা হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

দেশে বর্তমানে ২০.৩৬ শতাংশ সক্রিয় করোনা রোগী রয়েছে, ৭৮ শতাংশ চিকিৎসা মুক্ত এবং ১.৬৪ শতাংশ করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

গতকাল ১৩ সেপ্টেম্বর (রোববার) ৯ লাখ ৭৮ হাজার ৫০০ জনের করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। রোববার পর্যন্ত দেশে মোট ৫ কোটি ৭২ লাখ ৩৯ হাজার ৪২৮ জনের নমুনা পরীক্ষা সম্ভব হয়েছে।

এদিকে, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজি’র (এনআইভি) ডিরেক্টর প্রিয়া আব্রাহম এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ‘হু’র দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার কমিউনিকেবল ডিজিস বিভাগের সাবেক নির্দেশক রাজেশ ভাটিয়া জানিয়েছেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে বিশ্বজুড়ে ১৬৫টি ভ্যাকসিনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। এরমধ্যে রয়েছে ভারতের তিনটি। এ বছরের শেষেই ভারতের বাজারে এসে যাবে ওই ভ্যাকসিন।

তাদের কথায়, করোনাভাইরাস আটকানোর কোনও নির্দিষ্ট ওষুধ নেই। দেশ-বিদেশে করোনা রোগীদের হয় পৃথকভাবে, না হলে রিবাভিরিন, হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন, অ্যাজিথ্রোমাইসিন, ডেক্সামেথাসোনের সঙ্গে রেমডিসিভির, ফ্যাবিপিরাভির, লোপিনাভিরের মতো ওষুধ জরুরিকালীন ভিত্তিতে প্রয়োগ করা হয়েছে। কিন্তু কোভিডের নির্দিষ্ট ওষুধ পাওয়া যায়নি।

‘প্লাজমা থেরাপি’ করোনায় মৃত্যু রুখতে কিছুটা কার্যকরী হলেও ভারতের বিশাল জনসংখ্যার জন্য তা পাওয়া কঠিন। সেজন্য ভ্যাকসিনই একমাত্র পথ বলে এনআইভি এবং ‘হু’র কর্মকর্তারা মনে করছেন।

-জেডসি