ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৯, অক্টোবর ২০২০ ১:৪৭:৪৯ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের অল্প সুদে ঋণ দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর কোভিড-১৯: দেশে আরও ২৩ মৃত্যু, শনাক্ত ১৪৯৩ পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে ‘করোনা’ ও ‘ধর্ষণ’ ইউরোপে আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে প্রাণঘাতি করোনা: হু ইয়েমেনে অপুষ্টিতে লাখো শিশু মৃত্যুঝুঁকিতে: জাতিসংঘ

ভারতে ২৪ ঘন্টায় ৯২ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০১:০০ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ রবিবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

ভারতে শনিবার প্রথম দেখা গিয়েছিল দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যার থেকে বেশি হয়েছে করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা। সেই ট্রেন্ড বজায় থাকল রোববারও। ফের একবার আক্রান্তের থেকে বেশি করোনা জয়ী। তার ফলে কমল অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯২ হাজারের বেশি মানুষ। এর ফলে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেল ৫৪ লাখ। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থও হয়ে উঠেছেন ৯৪ হাজারের বেশি মানুষ। তার জেরে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা ছাড়িয়ে গিয়েছে ৪৩ লাখ।

দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রণালযের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৯২ হাজার ৬০৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে ২০ সেপ্টেম্বর, রবিবার, সকাল ৮টা পর্যন্ত ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫৪ লাখ ৬১৯ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১১৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। অর্থাৎ করোনায় মৃতের সংখ্যা ৮৬ হাজার ৭৫২ জন। ভারতে করোনায় মৃত্যুহার ১.৬১ শতাংশ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের বুলেটিন জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে উঠেছেন ৯৪ হাজার ৬১২ জন। ভারতে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা ৪৩ লাখ ৩ হাজার ৪৩ জন। এই মুহূর্তে দেশে সুস্থতার হার ৭৯.৬৮ শতাংশ। অর্থাৎ এই মুহূর্তে দেশে কোভিড অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ১০ লাখ ১০ হাজার ৮২৪ জন। মোট আক্রান্তের ১৮.৭২ শতাংশ রোগী এই মুহূর্তে অ্যাকটিভ রয়েছেন।

ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা সবথেকে বেশি মহারাষ্ট্রে। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ১১ লাখ ৮৮ হাজার ১৫ জন। মহারাষ্ট্রে কোভিডে মারা গিয়েছেন ৩২ হাজার ২১৬ জন। তবে এর মধ্যেই এই রাজ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮ লাখ ৫৭ হাজার ৯৩৩ জন। অর্থাৎ এই মুহূর্তে মহারাষ্ট্রে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ২ লাখ ৯৭ হাজার ৮৬৬ জন।

আক্রান্তের সংখ্যায় মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ। দক্ষিণের এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লাখ ১৭ হাজার ৭৭৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫৩০২ জনের। আক্রান্তের সংখ্যায় তিন নম্বরে রয়েছে তামিলনাড়ু। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ৩৬ হাজার ৪৭৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ৮৭৫১ জনের। চার নম্বরে রয়েছে কর্নাটক। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ১১ হাজার ৩৪৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ৭৯২২ জনের। পাঁচ নম্বরে রয়েছে উত্তরপ্রদেশ। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৪৮ হাজার ৫১৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪৯৫৩ জনের। ছ’নম্বরে রয়েছে দিল্লি। রাজধানীতে এই মুহূর্তে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৪২ হাজার ৮৯৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪৯৪৫ জনের।

মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, কর্নাটক, উত্তরপ্রদেশ ও দিল্লি, এই ছয় রাজ্যেই মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪ লাখ পেরিয়ে গিয়েছে। এই রাজ্যগুলি মিলিয়ে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪ লাখ ৪৫ হাজার ৩০ জন। এই সংখ্যা দেশের মোট আক্রান্তের ৬৩.৭৯ শতাংশ। এই ছয় রাজ্য মিলিয়ে মোট ৬৪ হাজার ৮৯ জনের মৃত্যু হয়েছে, যা দেশের মোট মৃত্যুর ৭৩.৮৮ শতাংশ।

-জেডসি