ঢাকা, শুক্রবার ২৯, মে ২০২০ ৩:৩৪:৩৯ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
৩১ মে থেকে শর্তসাপেক্ষে অফিস খোলার সিদ্ধান্ত করোনায় আরো একজন পুলিশের মৃত্যু ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২৫ হাজার ছাড়াল করোনা: দেশে একদিনে রেকর্ড ২০২৯ জন শনাক্ত, মৃত্যু ১৫ ইউনাইটেডে করোনার রোগীদের ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রাখা হয়েছিল

বেকার হতে পারে বিশ্বের প্রায় সাড়ে ৩ কোটি মানুষ: আইএলও

অনলাইন ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৬:৫১ পিএম, ৮ এপ্রিল ২০২০ বুধবার

বেকার হতে পারে বিশ্বের প্রায় সাড়ে ৩ কোটি মানুষ : আইএলও

বেকার হতে পারে বিশ্বের প্রায় সাড়ে ৩ কোটি মানুষ : আইএলও

আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) আশঙ্কা করছে বিশ্ব অর্থনীতিতে করোনাভাইরাসের কারণে যে প্রভাব পড়েছে তার ফলে ৩৩০ কোটি কর্মক্ষম মানুষ আংশিক বা পুরোপুরি বেকার হয়ে যেতে পারে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এমন সংকট আর আসেনি বলে মন্তব্য করছে জাতিসংঘের এই সহযোগী সংগঠন। তবে বছরের শেষ ছয় মাসে অর্থনীতির চাকা ঘুরে দাঁড়ালে বা কার্যকর নীতিকৌশল অবলম্বন করা গেলে এ অবস্থার পরিবর্তন করা সম্ভব বলেও আশা করছে আইএলও।

আইএলও বলছে, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দীর্ঘস্থায়ী হওয়া, কর্মজীবী মানুষের বর্তমান অবস্থা প্রশ্নবিদ্ধ, অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে ভবিষ্যত। এ অবস্থায় আংশিক বা পুরোপুরিভাবে বেকার হয়ে যেতে পারেন বৈশ্বিক কর্মক্ষম মানুষের ৮১ শতাংশ (৩৩০ কোটি)।

উল্লেখ্য, গত বছর ডিসেম্বরে আড়াই কোটি মানুষের নতুন করে বেকার হয়ে যাওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছিল আইএলও।

২০২০ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকে বিশ্বব্যাপী প্রতিষ্ঠানগুলো ৬ দশমিক ৭ শতাংশ কর্মঘণ্টা কমিয়ে দিতে পারে বলে মনে করছে আইএলও। এটি প্রায় ২০ কোটি পূর্ণকালীন কর্মজীবী মানুষের চাকরি হারানোর বাস্তবতা সৃষ্টি করবে। সবচেয়ে হুমকির মুখে পড়বে আরব অঞ্চলের দেশগুলো। এ অঞ্চলের ৫০ লাখ পূর্ণকালীন কর্মজীবী মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়তে পারেন। ফলে দেখা দিতে পারে অস্থিরতা।

এত পরিমাণ কর্মক্ষম মানুষের ‘আংশিক বা পুরোপুরিভাবে বেকার’ হওয়ার পেছনের কারণ করোনাভাইরাসে সৃষ্ট উদ্ভুত পরিস্থিতি। কারণ, প্রাব সব দেশে চলছে লকডাউন। ফলে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড। এসব দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান কর্মীদের আংশিক অথবা সম্পূর্ণভাবে চাকরি থেকে অব্যাহতি দিচ্ছে।

আইএলওর মহাপরিচালক গাই রাইডার বলেছেন, শ্রমিক ও ব্যবসায়ীরা বিপর্যয়ের মুখোমুখি হয়েছেন। উন্নত ও উন্নয়নশীল, দুই ধরনের দেশেই এ সংকট দেখা দিয়েছে। এ পরিস্থিতিতে আমাদের সকলকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। জরুরি ভিত্তিতে কিছু পদক্ষেপ নিলে হয়তো এ পতন থেকে রক্ষা পাওয়া যেতে পারে।