ঢাকা, বুধবার ১২, আগস্ট ২০২০ ০:৩০:০৮ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
রাশিয়ায় করোনা টিকার অনুমোদন, প্রথম টিকা নিলেন পুতিনকন্যা দেশে করোনায় আরো ৩৩ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৯৯৬ দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে টানা সপ্তম দিন দৈনিক করোনা সংক্রমণে শীর্ষে ভারত বাতিল হচ্ছে পিইসি-জেএসসি পরীক্ষা

সাহারা খাতুনকে থাইল্যান্ড নেয়া হবে সোমবার

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৭:৩৭ পিএম, ৩ জুলাই ২০২০ শুক্রবার

সাহারা খাতুনকে থাইল্যান্ড নেয়া হবে সোমবার

সাহারা খাতুনকে থাইল্যান্ড নেয়া হবে সোমবার

আওয়ামীলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন (৭২)কে উন্নত চিকিৎসার জন্য আগামী সোমবার থাইল্যান্ডে নেয়া হবে। তিনি বর্তমানে ইউনাইটেড হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন।

আজ শুক্রবার বিকেলে সাহারা খাতুন এমপি'র ব্যক্তিগত সহকারী মজিবুর রহমান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত দুই জুন জ্বর, অ্যালার্জিসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে অসুস্থ অবস্থায় অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন রাজধানীর গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হন। বর্তমানে তিনি হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র- আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন। তাকে থাইল্যান্ডের  বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হতে পারে। এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে থাইল্যান্ডে নেওয়ার সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

মজিবুর রহমান বলেন, উনি এখনও আইসিইউতে আছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, এখন তার শরীরের যে অবস্থা তিনি এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ফ্লাই করতে পারবেন। তার শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত আছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, ইউনাইটেড হাসপাতালের কমিউনিকেশন অ্যান্ড বিজনেস ডেভেলপমেন্টের প্রধান ডা. সাগুফা আনোয়ার আজ জানান, সাহারা খাতুনের পরিবার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ নিয়ে যাচ্ছেন। সে রকম ব্যবস্থা হচ্ছে। আমাদের যেসব পেপার্স দেওয়ার কথা ছিল সেগুলো দিয়ে দিয়েছি।

আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে,  গত দুই জুন সাবেকস্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ঢাকা -১৮ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন জ্বর, অ্যালার্জিসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে অসুস্থ অবস্থায় রাজধানীর গুলশানের বেসরকারী ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় অবস্থার অবনতি হলে গত ১৯ জুন সকালে তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। এরপর অবস্থার উন্নতি হলে গত ২২ জুন দুপুরে তাকে আইসিইউ থেকে এইচডিইউতে (হাই ডিপেন্ডেন্সি ইউনিট) স্থানান্তর করা হয়। ২৬ জুন সকালে তার শারীরিক অবস্থার আবারও অবনতি হয়। ফের নেয়া হয় আইসিইউতে। এখনও তিনি একই হাসপাতালে ভর্তি আছেন।