ঢাকা, রবিবার ২৯, মার্চ ২০২০ ২:২১:৩৪ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
নতুন করোনারোগী শনাক্ত হয়নি; আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ চারজন মাস্ক না পরায় তিন বৃদ্ধকে কান ধরানো সেই এসিল্যান্ড প্রত্যাহার মিরপুরে বাসায় আগুন, নারী-শিশুসহ নিহত ৩ করোনায় বিশ্বজুড়ে মৃত্যু ২৭৩৫২, আক্রান্ত প্রায় ৬ লাখ ইতালিতে ২৪ ঘন্টায় রেকর্ড সংখ্যক মৃত্যু

ধর্ষণ-যৌন হয়রানি: অভিযুক্ত হার্ভে উইন্সটেন

বিনোদন ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০২:০৯ পিএম, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ মঙ্গলবার

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

দীর্ঘ লড়াইয়ের পরে বড় সাফল্যের মুখ দেখল #মিটু আন্দোলন। যৌন নির্যাতনের গুরুতর অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হলেন হলিউডের বিখ্যাত প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টিন। নিউ ইয়র্ক সিটিতে তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ ও যৌন হয়রানির অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। তিনি শাস্তি হিসেবে ২৫ বছরের জেল পেতে পারেন। আগামী ১১ই মার্চ তার বিরুদ্ধে শাস্তি ঘোষণার কথা রয়েছে।

সোমবার নিউ ইয়র্কের জুরি বোর্ড তাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে। এরপর তাকে আটক করে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

কর্মক্ষেত্রে ধর্ষণ ও যৌন হেনস্তার শিকার হওয়ার ঘটনাগুলোর বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে তৈরি হওয়া #মিটু ঝড়ে প্রথম উঠে আসে এই বিদ্ধ সম্ভবত হার্ভে ওয়েনস্টিনের নাম। প্রথমে এক অভিনেত্রী-মডেল সাহস করে মুখ খুলেছিলেন তার বিরুদ্ধে।

পরবর্তীতে ওই অভিনেত্রীর প্রতিবাদ সাহস জুগিয়েছিল বাকিদের। এরপর একে একে সরব হন ৩০ জনেরও বেশি নারী। ৩০টির বেশি অভিযোগ জমা পড়ে বাফটা জয়ী এই প্রযোজকের বিরুদ্ধে। অভিযোগকারীদের মধ্যে অ্যাশলে জুড, রোজ ম্যাকগোয়ানের মতো অভিনেত্রীরা আছেন। যদিও সমস্ত অভিযোগ প্রথম থেকেই অস্বীকার করে আসছিলেন হার্ভে।

নিজের ক্ষমতা অপব্যবহার করে বহু নারীর সঙ্গে এই প্রযোজক অশ্লীল আচরণ করেছেন বলে অভিযোগ। সিনেমায় সুযোগ পাইয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতির বিনিময়ে নবাগতদের হোটেল রুমে ডাকতেন তিনি। সেখানে তাদের ধর্ষণ ও নানা ভাবে হেনস্তা করা হতো বলেও অভিযোগ।

অভিযোগকারীদের কেউ কেউ জানিয়েছেন, সিনেমায় কাজের সুযোগের বদলে শরীরী সম্পর্ক স্থাপন বা নারীদের সম্পূর্ণ উলঙ্গ হয়ে তার সামনে বসে থাকতে বাধ্য করাতেন হার্ভে ওয়েনস্টিন। এমনকী, কেউ কেউ তার বিরুদ্ধে মারধর করার অভিযোগও তুলেছেন।

হার্ভের বিরুদ্ধে ওঠা এতসব অভিযোগের বিচার শুরু হয় গত ৬ জানুয়ারি নিউ ইয়র্কের আদালতে। ২০০৬ সালে মিমি হ্যালেইকে যৌন নির্যাতন এবং জেসিকা মানকে ২০১৩ সালে ধর্ষণের অভিযোগে তাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে মার্কিন আদালত।

তবে যৌন আঘাতের গুরুতর অভিযোগ থেকে তাকে নিষ্কৃতি দেয়া হয়েছে বিখ্যাত থেকে কুখ্যাত হয়ে যাওয়া প্রযোজক হার্ভেকে। এই অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড নিশ্চিত ছিল।

-জেডসি