ঢাকা, মঙ্গলবার ২৬, মে ২০২০ ১৯:০৬:৩২ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
আম্পানের ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে বাংলাদেশকে ১১ লাখ ইউরো দেবে ইইউ বাংলাদেশসহ ১১ দেশ থেকে জাপানে প্রবেশ নিষেধ সামনে কঠিন সময় আসছে: ওবায়দুল কাদের করোনা: গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মারা গেছে ২১জন, নতুন শনাক্ত ১১৬৬ করোনা: ভারতে মোট আক্রান্ত এক লাখ ৪৫ হাজার, মৃত ৪১৬৭

প্রসঙ্গ করোনাভাইরাস: চলুন, সবাই মানবিক আচরণ করি

অমিত কে বিশ্বাস | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৯:০২ পিএম, ২৩ মার্চ ২০২০ সোমবার

অমিত কে বিশ্বাস

অমিত কে বিশ্বাস

করোনাভাইরাস ইস্যুতে মানুষ ও মনুষত্ব আজ কোথায় অবস্থান করছে তা ভাবলেও শিহরিত হতে হচ্ছে! দেশে করোনা রোগীদের চিকিৎসার স্বাভাবিক সুযোগ খুবই অপ্রতুল।

আজ রাজধানীর উত্তরার কোন একটি হাসপাতালে করোনা রোগী ভর্তি হয়েছে জানাজানি হলে স্থানীয় একদল লোক মিছিল করে তাকে বের করে দেওয়ার জন্য।

প্রশ্ন হচ্ছে তাহলে ওই রোগী কোথায় যাবে? তার কি চিকিৎসার প্রয়োজন নাই? একবারও কি সেই রোগী বা তার  পরিবারের মানুষের মনের অবস্থা বোঝার চেষ্টা করছি আমরা?

যারা মিছিল করছেন কিংবা যারা এসব মিছিলে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের যদি করোনা হয় তারা কি করবেন? আপনাদের জন্যও কি একই আচরণ আশা করেন! কেন এই অমানবিক ব্যবহার?

আমরা চীন, কানাডাসহ উন্নত বিশ্বের আচরণ দেখছি। সেখানে মানুষ কি ভাবে রোগীদের পাশে দাঁড়াচ্ছে তা দেখছি। সরকার বটবৃক্ষের মত ছাঁয়া দিয়ে মানুষকে সুস্থ করে তুলছে। এগুলো দেখেও কি আমরা মানুষ হয়ে উঠতে পারি না! কোয়ারেন্টাইমের নামে রোগীকে প্রকৃত অর্থে বন্দি করে রাখা যাবে না। এই মুহূর্তে তার শারীরিক ও মানসিক উভয় সাপোর্টই জরুরি।  

মানুষ ভয়ে অসুখের কথা বলতে পারছে না। ডাক্তার তার সেবা দিতে ভয় পাচ্ছেন। পর্যাপ্ত পিপিই-এর ব্যবস্থা নেই হাসপাতালগুলোতে। হাসপাতালের ওয়ার্ডগুলো দ্রুত আরো প্রস্তুত করতে হবে। সেবা প্রদানকারীদের সঠিক দিক নির্দেশনা দিতে হবে, যাতে তারা নিজেদের নিরাপদ রেখে উৎসাহের সাথে রোগীদের সেবা দিতে পারেন।

দেখুন, এখন দোষারোপ করার সময় নয়। ব্যক্তি, সমাজ, প্রতিষ্ঠান, সরকার কেউ কিন্তু ঝুঁকিমুক্ত না। এটাই বাস্তবতা! তাই আসুন আমরা অন্তত এই একটি বিষয়ে সবাই মানবিক আচরণ করি। যার যার অবস্থান থেকে সহযোগিতা করি।

সরকারের অনেক কিছুই  করার ছিল, আবার সরকার অনেক কিছুই করছে। কিন্তু বড় বড় ইন্ডাস্ট্রি, এনজিও, সামাজিক প্রতিষ্ঠান, অ্যাসোসিয়েশন-এমন কি সমজের সামর্থ্যবান ব্যক্তি কয়জন কয়টা গুরুত্বপূর্ণ উদাহরণ রেখেছি এ প্রতিকূল সময়ে?

রাজধানীতে কত নামিদামি প্রাইভেট হাসপাতাল রয়েছে। তারাও তো অনেক বড় ভূমিকা রাখতে পারেন এই সময়। অনেকে হয়তো রাখছেনও যেটা আমার জানার বাইরে।

তাই বলি এ যুদ্ধ কোন ব্যক্তি, দল, মত, ধর্ম, প্রতিষ্ঠান কারো একার নয়, এ যুদ্ধ আমাদের সবার। এই পরিস্থিতিকে মোকাবেলা করতে হবে ধৈর্য, সততা, স্বচ্ছতা ও মানবিক আচরণের মধ্য দিয়ে। সৃষ্টিকর্তা আমাদের আরো মানবিক আচরণের মধ্য দিয়ে এ বিপদ থেকে রক্ষা করবেন আশা করি।

লেখক : অমিত কে বিশ্বাস, সম্পাদক, দ্যা অ্যাপারেল নিউজ