ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৫, ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০:০৯:০৪ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
দেশে এ পর্যন্ত প্রায় ২৭ লাখ মানুষ করোনা টিকা নিয়েছে শেখ হাসিনার মতো দক্ষ-দেশপ্রেমী নেতা বিশ্বে নেই: দিপু মনি করোনা: নতুন মৃত্যু ৫, শনাক্ত ৪২৮ কোভিড টিকা নিলেন শেখ রেহানা মাদক মামলায় নারীকে ১০টি বই পড়ার দণ্ড

বাইডেন প্রশাসনে আরেক বাংলাদেশী নারী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ১১:১৭ এএম, ২৭ জানুয়ারি ২০২১ বুধবার

ফারাহ আহমদ।

ফারাহ আহমদ।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসনে নিয়োগ পেয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফারাহ আহমদ। মার্কিন কৃষি বিভাগের আওতাধীন পল্লী উন্নয়ন আন্ডার সেক্রেটারির কার্যালয়ে চিফ অব স্টাফ হিসেবে তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার মার্কিন কৃষি বিভাগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। ফারাহ আহমেদের নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করে মার্কিন গণমাধ্যমগুলো বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসনে এখন পর্যন্ত কোনো বাংলাদেশির জন্য এটাই সর্বোচ্চ পদ। এ নিয়ে তিনজন বাংলাদেশীকে বাইডেন প্রশাসনে নিয়োগ দেওয়া হলো।


নরসিংদীর সন্তান ওয়াইয়োর একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মাতলুব আহমেদ এবং ড. ফেরদৌস আহমেদের মেয়ে ফারাহ বাংলাদেশ আনবিক শক্তি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. আব্দুল বাতেন খানের নাতনী।

এর আগে ফারাহ আহমদ গ্রাহক শিক্ষা অফিসে সিনিয়র প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর এবং গ্রাহক আর্থিক সুরক্ষা ব্যুরোতে (সিএফপিবি) চিফ অপারেটিং অফিসারের সিনিয়র উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক এবং প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনকারী ফারাহ মার্কিন কৃষি বিভাগের (ইউএসডিএ) পল্লী ব্যবসায় সমবায় পরিষেবায় কমিউনিটি এবং অর্থনৈতিক উন্নয়ন দলের প্রোগ্রাম ম্যানেজার এবং আমেরিকান অগ্রগতির সেন্টারে সিনিয়র পলিসি অ্যানালিস্টের দায়িত্ব পালন করেছেন।

ফারাহ আহমদ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ড. আব্দুল মঈন খানের ভাগ্নি।

এর আগে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আমেরিকান জেইন সিদ্দিক হোয়াইট হাউজের ডেপুটি চিফ অব স্টাফের সিনিয়র অ্যাডভাইজার হয়েছেন। জেইনের মা-বাবা ময়মনসিংহের নান্দাইলের সন্তান।

বাইডেনের ট্রানজিশন টিমের আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম দলেও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে রয়েছেন আরেক বাংলাদেশি-আমেরিকান রুমানা আহমেদ।

রুমানা সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময়েও হোয়াইট হাউজে কাজ করেছেন। ফারাহ আহমেদও বারাক ওবামার আমলে ভিন্ন একটি দায়িত্বে ছিলেন।