ঢাকা, বৃহস্পতিবার ০২, ডিসেম্বর ২০২১ ২:৪৪:৫৭ এএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
ভারত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত স্থগিত ব্রাজিলে করোনার নতুন ধরন ‘ওমিক্রন’ শনাক্ত ২৩ দেশে ছড়িয়েছে ওমিক্রন,৭০ দেশের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা কাল শুরু এক দিনে করোনায় শনাক্ত ২৮২, মৃত্যু ২

‘রেহানা মরিয়ম নূর’সিনেমা নিয়ে তসলিমার কড়া সমালোচনা

অনলাইন ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০৭:২০ পিএম, ২১ নভেম্বর ২০২১ রবিবার

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

কান চলচ্চিত্র উৎসব ঘুরে দেশে মুক্তি পেয়েছে আলোচিত সিনেমা ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ পরিচালিত এ সিনেমা দর্শকদের ভূয়সী প্রশংসা কুড়াচ্ছেন।

আজমেরী হক বাঁধন অভিনীত এ সিনেমা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় স্ট্যাটাস দিয়েছেন আলোচিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। তাতে কড়া সমালোচনা করেছেন তিনি। লেখার শুরুতে তিনি লিখেন, ‘প্রথম কানে গিয়েছে বাংলাদেশের কোনো সিনেমা, খুব স্বাভাবিক যে সিনেমাটি দেখার আগ্রহ খুব হবে আমার। সিনেমাটি দেখার সৌভাগ্য হলো কাল রাতে।’

সিনেমাটির মুখ্য চরিত্র নিয়ে তসলিমা লিখেন, ‘‘রেহানা মরিয়াম নূর’ সিনেমার প্রধান চরিত্রে আমার মনে হয়নি আছেন কোনো সৎ বা উদার কোনো মানুষ। প্রথম থেকেই তিনি রগচটা, রুক্ষ্ম, স্বার্থপর, একগুঁয়ে, আত্মকেন্দ্রিক। ধার্মিক রেহানাকে যদি নারীবাদী হিসেবে দেখানোর চেষ্টা হয়ে থাকে, তাহলে ভুল। নারীবাদীদের সংবেদনশীল হতে হয়। যত না সংবেদনশীল তিনি, তারচেয়ে বেশি প্রতিশোধপরায়ণ। তার জন্য কোনো শ্রদ্ধা বা সহানুভূতি জন্মায় না।’’

তসলিমা নাসরিন মনে করছেন সিনেমাটি বড় পর্দায় প্রদর্শনের জন্য উপযুক্ত নয়। তার ভাষায়—‘সিনেমাটি ডেনিশ ডগমা ফিল্মের মতো হাত-ক্যামেরায় শুট করা। কিন্তু বারবারই জনমানবহীন হাসপাতালের একই করিডোর, একই ঘোলা ঘর। কোনো আউটডোর নেই। কোনো আকাশ-বাতাস নেই। শ্বাস নেওয়ার জায়গা নেই। সিনেমাটি সিনেমা না হয়ে কোনো ডার্ক নাটক হলে ভালো হতো। সিনেমার বড় পর্দায় না দেখিয়ে মঞ্চে দেখালে মানাতো।’

একটি বেসরকারি মেডিক‌্যাল কলেজের সহকারী অধ্যাপক রেহানা মরিয়ম নূরকে কেন্দ্র করে এ চলচ্চিত্রের গল্প। কর্মস্থলে ও পরিবারে তাল মেলাতে গিয়ে হিমশিম খেতে হয় তাকে। কারণ, শিক্ষক, চিকিৎসক, বোন, কন্যা ও মা হিসেবে জটিল জীবনযাপন করেন তিনি। এ চরিত্রে অভিনয় করেছেন বাঁধন।


আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ সাদের এই চলচ্চিত্র ৭৪তম কান উৎসবের আঁ সার্তে রিগা বিভাগের জন্য নির্বাচিত হয়। পুরস্কার না জিতলেও দারুণ প্রশংসা কুড়ায় উৎসবে। তবে এশিয়া প্যাসিফিক স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ডসে (অ্যাপসা) সেরার পুস্কার জিতেছে সিনেমাটি। শুধু তাই নয়, এ সিনেমার জন্য সেরা অভিনেত্রী নির্বাচিত হয়েছেন বাঁধন।

বাঁধন ছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন সাবেরী আলম, আফিয়া জাহিন জায়মা, আফিয়া তাবাসসুম বর্ণ, কাজী সামি হাসান, ইয়াছির আল হক, জোপারি লুই, ফারজানা বীথি, জাহেদ চৌধুরী মিঠু, খুশিয়ারা খুশবু অনি, অভ্রদিত চৌধুরী।