ঢাকা, বুধবার ২৪, জুলাই ২০২৪ ১৮:৩৪:৫৪ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
সরকার কোটা সংস্কারের পক্ষে: আইনমন্ত্রী মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধের কারণ জানালেন পলক বেরোবি শিক্ষার্থী আবু সাঈদ নিহতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি চীনে শপিংমলে ভয়াবহ আগুনে নিহত অন্তত ১৬ রাজধানীতে গণপরিবহন সংকট, দুর্ভোগ চরমে সারা দেশে চলছে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক বন্ধ, ভোগান্তিতে মানুষ ঢাকাসহ সারাদেশে ২২৯ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন

সন্ধ্যার পর চা খান? পিছু নিতে পারে একাধিক অসুখ

লাইফস্টাইল ডেস্ক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ১২:২৮ পিএম, ২৪ জুন ২০২৪ সোমবার

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

চা পানের অভ্যাস কমবেশি সবারই আছে। কেউ কেউ তো সকাল থেকে শুরু করে রাত পর্যন্ত চা খান। এই ভুলটা করেন না বলেই তাদের পিছু নিতে পারে একাধিক অসুখ। আর সেই তালিকায় গ্যাস, অ্যাসিডিটি, বমি-বমি ভাব থেকে শুরু করে দুশ্চিন্ত, উৎকণ্ঠার মতো সমস্যাও রয়েছে। জানুন সন্ধ্যার পর চা খেলে কী কী অসুখের ফাঁদে পড়তে পারেন। 

বাড়বে দুশ্চিন্তা​

এমনিতেই আমাদের জীবনে চিন্তার শেষ নেই। তার উপর যদি সারাদিনে একাধিক চায়ের কাপে চুমুক দেন, তাতে মনের পরিস্থিতি আরও খারাপ দিকে যাবে বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। বিশেষ করে, রাতের বেলায় চা খেলে মনের হাল বিগড়ে যাওয়ার আশঙ্কা বাড়ে।


আসলে আমাদের অতি প্রিয় চায়ে রয়েছে ক্যাফিনের ভাণ্ডার। আর এই উপাদানের কারসাজিতেই পিছু নিতে পারে উৎকণ্ঠা, দুশ্চিন্তার মতো সমস্যা। তাই সারাদিনে মোটামুটি ২ থেকে ৩ কাপ চায়ের মধ্যেই নিজেকে আটকে রাখুন। আর রাতের বেলায় এড়িয়ে চলুন এই পানীয়। আশা করছি, তাতেই উপকার মিলবে হাতেনাতে।

​ঘুমের হবে দফারফা​

ঘুমের মধ্যে আমাদের শরীর নিজেকে পরবর্তী যুদ্ধের জন্য মানসিক এবং শারীরিকভাবে তৈরি করে। তাই কর্মচঞ্চল জীবন কাটাতে চাইলে রাতে শান্তিতে ঘুমাতে হবে। তবে মুশকিল হল, আপনার যদি রোজ রাতে চা খাওয়ার অভ্যাস থাকে, তাহলে কিন্তু ঘুমের বারোটা বাজলেও বাজতে পারে। কারণ, এই পানীয়ে উপস্থিত ট্যানিন ঘুমে সাহায্যকারী মেলাটোনিন হরমোন ক্ষরণে বাধা দেয়। ফলে ঠিকমতো ঘুম হয় না। তাই শান্তিতে নিদ্রা যেতে চাইলে রাতে চা খাওয়ার লোভ সামলে নিন।

হতে পারে বমি বমি ভাব

চায়ে রয়েছে ট্যানিন নামক একটি উপাদান। আর এই উপাদান হজমের গোলযোগের কারণ হতে পারে। যার ফলে সঙ্গী হতে পারে বমি বমি ভাবের মতো সমস্যা। এমনকি পিছু নিতে পারে গ্যাস, অ্যাসিডিটি, পেট ব্যথা। তাই সারাদিনে অহেতুক আর কাপের পর কাপ চা খাবেন না। বিশেষত, সন্ধে নামার পর কোনও মতেই এই পানীয়ে ঠোঁট ছোঁয়ানো উচিত হবে না। আশা করছি, এই নিয়মটা মেনে চললেই পেট থাকবে সুস্থ-সবল। একাধিক রোগও থাকবে দূরে।

ক্যাফিন মাথা ব্যথারও কারণ হতে পারে

সারাদিন মনোযোগ সহকারে কাজ করার পর মাথা ধরা স্বাভাবিক। আর এমন পরিস্থিতিতে অনেকেই এক কাপ কড়া চা খাওয়ার পক্ষপাতি। তাতেই ব্যথা উবে যায় বলে দাবি করেন তারা। তবে সত্যি বলতে, সারাদিন একধিকবার চা খেলে কিন্তু এই উপকার মেলে না। উল্টে এতে মজুত ক্যাফিনের কারসাজিতে পিছু নিতে শুরু করে মাথা ব্যথা। তাই চেষ্টা করুন রাতে চা খাওয়ার অভ্যাসে লাগাম পরাতে। তাতেই হাতেনাতে উপকার মিলবে বলে জানালেন বিশেষজ্ঞরা।