ঢাকা, মঙ্গলবার ০৭, ডিসেম্বর ২০২১ ১৫:৪২:০৮ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
মেঘনা নামে কুমিল্লা ও পদ্মা নামে ফরিদপুর বিভাগ হবে: প্রধানমন্ত্রী ওমিক্রনের সংক্রমণ ক্ষমতা বেশি হলেও মারণ ক্ষমতা কম: ফাউসি সারা দেশে সংক্রমণরোধী পদক্ষেপ জোরদারের নির্দেশ বিশ্বে করোনায় আরও ৫ হাজারের বেশি প্রাণহানি সমন্বিত প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক নতুন উচ্চতায়: স্পিকার পঞ্চম-অষ্টমে সমাপনী পরীক্ষা না থাকলেও থাকবে বৃত্তি-সনদ বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরও দৃঢ় করার আহ্বান

জামিন পেলেন বাউল শিল্পী রিতা দেওয়ান

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ০১:২২ পিএম, ১৩ জানুয়ারি ২০২১ বুধবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

পালা গানের মাধ্যমে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করে মন্তব্য করায় ডিজিটাল অ্যাক্টের মামলায় আত্মসমর্পণ করে জামিন পেয়েছেন বাউল শিল্পী রিতা দেওয়ান। এর আগে গত ৩১ জানুয়ারি রিতা দেওয়ানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি দায়ের করেন অ্যাডভোকেট ইমরুল হাসান।

আজ বুধবার (১৩ জানুয়ারি) ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেনের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে শুনানি শেষে আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন।

আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণের পর অভিযোগের বিষয়ে পিবিআইকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। পরে গত ২০ অক্টোবর পিবিআইর পুলিশ পরিদর্শক শেখ মো. মিজানুর রহমান ৩ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। সেই প্রতিবেদন আমলে নিয়ে গত ২ ডিসেম্বর আদালত রীতা দেওয়ানসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হওয়া অপর ২ আসামি হলেন-শাজাহান ও ইকবাল। এরপরেই ওই মামলায় তিনি আত্মসমর্পন করে জামিন পেলেন।

এদিকে, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করার অভিযোগে রিতা দেওয়ানের বিরুদ্ধে দায়ের করা আরেকটি মামলায় আগামীকাল বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হবে কি না সেই বিষয়ে আদেশের জন্য ধার্য রয়েছে।

যে মামলায় রিতা দেওয়ান জামিন পেলে সেটির বাদী আইনজীবী ইমরুল হাসান জানান, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৮ ধারায় অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে মর্মে প্রতিবেদন দাখিল করে পিবিআই। প্রতিবেদন আমলে নিয়ে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিলেন আদালত। চলতি বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি রিতা দেওয়ানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে এই মামলা দায়ের করা হয়েছিলো।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৮ (১) ধারায় দায়ের করা মামলায় বলা হয়েছিলো, ‘সম্প্রতি একটি পালা গানের আসরে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে গিয়ে রিতা দেওয়ান মহান আল্লাহকে নিয়ে অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে’ পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিওটি ভাইরাল হলে এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। যদিও পরে ক্ষমা চান রিতা দেওয়ান। এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার পর গত বছরের ১ ফেব্রুয়ারি ‘গান রূপালি এইচডি’ নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিও বার্তায় ক্ষমা চান রিতা।

ওই ভিডিও সাক্ষাতকারে রিতা দেওয়ান ছাড়াও তার দুই মেয়ে আফরিন দেওয়ান ও নাজমিন দেওয়ান ক্ষমা প্রার্থনা করেন। রিতা বলেন, আমার একটা গান ইউটিউব চ্যানেলে ভাইরাল হয়ে সমস্যায় পড়ে গেছি। আমার ভুলটি ছিলো, আসলে তো আল্লাহর সাথে কখনো পাল্লা চলে না। তার দয়ায় তার রহমতে আমি বাচ্চা ছেলে মেয়ে নিয়ে গান করে বেঁচে আছি। সেদিন যে পালাটা ছিলো তাতে আমার প্রতিপক্ষ ছিলো পরম। অভিনয় করতে গিয়ে তাকে আক্রমণ করতে গিয়ে আমার সৃষ্টিকর্তার দিকে চলে গেছে। এটা আমার ভুল হয়ে গেছে।

রিতা বলেন, পালা করতে গেলে সারারাত-সারাদিনব্যাপী কথা বলতে হয়। একটা কথা এদিক-সেদিক হয়ে যায়। ভুল হয়ে যায়। তবে এ কথাটা আমার ভুল হয়ে গেছে। মুসলিম ভাই বোনদের কাছে আমি বলবো আমার ভুল হয়ে গেছে। আমাকে ক্ষমা করে দিবেন। আমি যেন আর কোনোদিনও ভুল না করি। এবং আমি যেন ধর্মের বিরুদ্ধে বলি নাই ভুল হয়ে গেছে তারপরও যেন আর না বলি।

এসময় রিতা দেওয়ান দুই হাতজড়ো করে দর্শকদের উদ্দেশ্যে ক্ষমা চান। রিতা দেওয়ানের সঙ্গে তার দুই মেয়েও এসময় মায়ের সাথে করজোড়ে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। রিতা দেওয়ান বলেন, মানুষ হয়ে পৃথিবীতে এসেছি। মানুষ হয়ে থাকতে চাই। আল্লাহকে নিয়ে কটু কথা বলিনাই, মালিক যেন আমাকে ভুল না করায়। এটা আমার ভুল হয়ে গেছে। মানুষের ভুল হয়, শয়তানের ভুল নেই। শয়তানই আমাকে দিয়ে ভুল করিয়েছে।

ছোট মেয়ে আফরিন দেওয়ান বলেন, আমি বলতে চাই- আমার মায়ের হয়ে আমি আপনাদের কাছে ক্ষমা চাই। আর আমি প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি আমার মার আর এরকম ভুল করবেন না।

বড় মেয়ে নাজমিন দেওয়ান বলেন, আসলে আমার মা বাউল গান করে। গান করতে গিয়ে অনেক শিল্পীরা অনেক ধরণের ভুল হয়। আমার মা ভুল হয়ে গেছে। আমার মায়ের হয়ে আমরা দুই বোন ক্ষমা চাচ্ছি। আমরা প্রতিশ্রিুতি দিচ্ছি না আমার মা এরকম ভুল করবে না। আপনারা আমার মায়ের জন্য না, আমাদের মুখের দিকে তাকিয়ে আমার মাকে ক্ষমা করে দিবেন।

এর আগে, শরিয়ত বয়াতি নামক এক বাউলশিল্পী পালা গানের আসরে ইসলামের গান বাজনা জায়েজ আছে বলে মন্তব্য করেন। পাশাপাশি তিনি আল্লাহ-রাসূল (সা.) ও ইসলাম ধর্ম নিয়ে আপত্তিকর কথা বলেন। ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা দায়ের হয়। পরে বিক্ষোভের মুখে তাকে টাঙ্গাইলের পুলিশ গ্রেফতার করে।

-জেডসি