ঢাকা, শনিবার ২৩, অক্টোবর ২০২১ ১৫:২০:৫০ পিএম

First woman affairs online newspaper of Bangladesh : Since 2012

Equality for all
Amin Jewellers Ltd. Gold & Diamond
শিরোনাম
মণ্ডপে হামলার প্রতিবাদে চট্টগ্রামে গণঅনশন ট্রেনে কাটা পড়ে ছেলেসহ বাবা-মা নিহত যুক্তরাজ্যে নতুন বিপদ ‘ডেল্টা প্লাস’ ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনা উপসর্গে ৩ জনের মৃত্যু রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ফের অনশনে বিএফইউজে নির্বাচনের ভোট শুরু বিশ্বজুড়ে বেড়েছে সংক্রমণ, কমেছে মৃত্যু

শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে স্বাগত জানানো হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক | উইমেননিউজ২৪

প্রকাশিত : ১২:৫৫ পিএম, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ বুধবার

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

আগামী ১২ সেপ্টেম্বর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে। স্কুল-কলেজগুলোয় শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানাতে প্রস্তুতি নিচ্ছে কর্তৃপক্ষ। শিক্ষা প্রশাসনের নির্দেশনা মোতাবেক এমন প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। 

জানা গেছে, এ দিন আনন্দঘন আয়োজনের মধ্য দিয়ে শিক্ষকরা ফুল দিয়ে বরণ করবেন শিক্ষার্থীদের। প্রথম দিনের ক্লাসে স্বাস্থ্যবিধি পালন সম্পর্কে দেওয়া হবে ধারণা। দীর্ঘ ছুটির অবসাদ কাটিয়ে লেখাপড়ায় মনোযোগী করতে প্রথম ক্লাসেই মোটিভেশনাল বক্তব্য দেবেন শিক্ষকরা। ৬-৮ সপ্তাহ শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার চাপ দেওয়া হবে না। ক্লাসে অনুপস্থিত শিক্ষার্থীর বাড়িতে গিয়ে খোঁজ নেবেন শিক্ষকরা। শিক্ষা
প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার পর সংশ্লিষ্ট এলাকার করোনা সংক্রমণও পরিস্থিতি প্রতিদিন পর্যবেক্ষণ করা হবে। 

খুলে দেওয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এলাকার ওয়ার্ড, ইউনিয়নে সংক্রমণের হার ১০ শতাংশ হলে অতি ঝুঁকিপুর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে ওই স্কুল চালু রাখার বিষয় পুনর্বিবেচনা করবে শিক্ষা প্রশাসন।

দেশে প্রাথমিক স্তরে শিক্ষার্থী রয়েছে এক কোটি ৭৫ লাখ। মাধ্যমিকে এক কোটি ৩ লাখ আর কলেজে ৫০ লাখ, মাদ্রাসাসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে ৫০ লাখ। সব মিলিয়ে ৩ কোটি ৭৮ লাখ শিক্ষার্থী ক্লাসে ফেরার অপেক্ষা করছে। 

এদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার প্রথম দিন স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের বিশেষভাবে স্বাগত জানানোর বিশেষ পরিকল্পনা নিয়েছে রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ। 

এই প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ কামরুন নাহার গণমাধ্যমকে বলেন, অনেক দিন পর শিক্ষার্থীরা স্কুলে আসবে। বিষয়টি শিক্ষকদের জন্যও আনন্দের। আমরা ১২ তারিখে শিক্ষার্থীদের ক্লাসে স্বাগত জানানোর জন্য অপেক্ষা করছি। শিক্ষার্থীরা যখন স্কুলে প্রবেশ করবে, শিক্ষকরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সারিবদ্ধ দাঁড়িয়ে স্বাগত জানাব। 

তিনি আরও বলেন, ফুল দিয়ে শিক্ষার্থীদের বরণ করার ইচ্ছে আছে আমাদের। করোনা বিস্তারের ঝুঁকি না থাকলে আমরা তা করবো। এমনটাও হতে পারে শিক্ষকরা দাঁড়িয়ে করতালি দিয়ে শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানাবেন।